২৮ বছরের ইতিহাসকে পাল্টে দিলো মেসিরা

চলমান কোপা আমেরিকায় আর্জেন্টিনার জয়যাত্রা ছুটছে। দারুন ছন্দে আছে বাহিনী। চিলির বিপক্ষে ড্র দিয়ে টুর্নামেন্ট শুরু করলেও, এরপর টানা চার ম্যাচ জিতে আসরের সেমিফাইনালে পৌঁছে গেছে আলবিসেলেস্তেরা। এ নিয়ে টানা চার কোপায় সেমিফাইনালের টিকিট পেল আর্জেন্টিনা।

টুর্নামেন্টের ইতিহাসের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১৪ বারের চ্যাম্পিয়নদের এ যাত্রা শুরু হয়েছিল ২০১৫ সালে। সেবার তারা ফাইনালে উঠে হেরে যায় চিলির কাছে। পরের বছরের কোপা আমেরিকায়ও ফাইনালে গিয়ে চিলির বিপক্ষে হেরেই থামে তাদের দৌড়।

এরপর ব্রাজিলে হওয়া ২০১৯ সালের আসরেও সেরা চারে পৌঁছায় লিওনেল মেসির দল। কিন্তু স্বাগতিকদের কাছে সেমিফাইনালে হেরে বিদায় নিতে হয় টুর্নামেন্ট থেকে। তবে তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচে চিলিকে হারিয়ে তৃতীয় হয়ে টুর্নামেন্ট শেষ করে তারা।

ধারাবাহিকতা বজায় রেখে এবারের আসরেও সেমিফাইনালে উঠেছে আর্জেন্টিনা। এ নিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো টানা চার আসরের ফাইনালে উঠল ১৪ বারের কোপা চ্যাম্পিয়নরা। এর আগে ১৯৮৭, ১৯৮৯, ১৯৯১ ও ১৯৯৩ সালের আসরে টানা সেমিতে উঠেছিল তারা।

সেবার ১৯৮৭ সালের আসরে চতুর্থ হয়েই বাদ পড়ে আর্জেন্টিনা। পরের আসরে খানিক উন্নতি ঘটে তাদের, হয় তৃতীয়। এরপর ১৯৯১ ও ১৯৯৩ সালের আসরে শিরোপা জিতে নেয় আলবিসেলেস্তেরা। ১৯৯৩ সালের পর আর কোপার স্বাদ পাওয়া হয়নি তাদের।

মজার বিষয় হলো, ১৯৯৩ সালের কোপা আমেরিকায় সেমিফাইনালে আর্জেন্টিনার প্রতিপক্ষ ছিল কলম্বিয়া। এবার ২০২১ সালের আসরেও সেমিতে কলম্বিয়াকে পেলেন লিওনেল মেসিরা। ২৮ বছর আগের ম্যাচটিতে কলম্বিয়ার বিপক্ষে নির্ধারিত সময়ে ছিল গোলশূন্য ড্র।

পরে টাইব্রেকারে গিয়ে ৬-৫ ব্যবধানে জিতে ফাইনালের টিকিট পায় আর্জেন্টিনা। শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচে মেক্সিকোকে ২-১ গোলে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয় তারা। এবার কলম্বিয়ার বিপক্ষে কী করবে লিওনেল মেসির দল? তার উত্তর দেবে সময়। আগামী বুধবার বাংলাদেশ সময় সকাল ৭টায় সেমিফাইনাল ম্যাচে মাঠে নামবে আর্জেন্টিনা।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*