২৮০০ টাকার খাবার খেয়ে ১২ লাখ টাকার টিপস!

একটি রেস্তোঁরায় চিলি ডগস, পানীয় ও ফ্রাইড পিকল চিপস খান ভোজনরসিক একজন ব্যক্তি। পরে তার বিল হয় ২ হাজার ৮০০ টাকা। ওই ব্যক্তি রেস্তোরাঁর কর্মীকে বিলের রসিদের সঙ্গে টিপস হিসেবে প্রায় ১২ লাখ টাকার রেখে যান। খবরটি শুনতে অবাক লাগলেও আমেরিকার নিউ হ্যাম্পশায়ারের একটি রেস্তোঁরায় ঠিক ওই কাণ্ডই ঘটিয়েছেন এক ব্যক্তি।

তিনি চিলি ডগস, ফ্রাইড পিকল চিপস এবং পানীয় অর্ডার করেছিলেন। এরপর তিনি টিপস হিসেবে রেখে যান ১৬ হাজার ডলার। যার মূল্য ভারতীয় মুদ্রায় ১১ দশমিক ৮ লাখ টাকা।প্রথমে ওই রেস্তোরাঁর কর্মীরা কেউ ব্যাপারটা খেয়াল করেনি। পরে ব্যাপারটা খেয়াল পড়তেই হইচই পড়ে যায়।

রেস্তোরাঁর মালিক মাইক জেরেলা জানান, আগে এই এলাকায় প্রচণ্ড লোকজনের সমাগম হতো। তবে, করোনা ম’হামা’রির জেরে ভোজনরসিকের সংখ্যা অনেকটা কমে গেছে। টিপদানকারী ব্যক্তির নাম সামনে না এনে সেই বিলের ছবি টিপসসহ সামনে এনেছেন তিনি।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ওই বিলের ছবি আপলোড করতেই তা ভাইরাল হয়ে যায়। এদিকে নেটিজেনেরা ওই ব্যক্তির ভূয়সী প্রশংসা করছেন। প্রথমে সকলে ভেবেছিলেন ভুল করে ওই ব্যক্তি এই কাণ্ড করেছেন। পরে জানা যায়, রেস্তারাঁর কর্মীকে টিপস দেওয়ার পর তিনি বলেছিলেন, ওই কর্মী যাতে এক জায়গায় সব টাকা খরচ না করে।

এত বিশাল পরিমাণে টিপস দেখে হতবাক হয়ে যায় রেস্তোরাঁ কর্মীও। ওই ব্যক্তিকে এ বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, আপনারা এত পরিশ্রম করেন, এ টাকা আপনাদের প্রাপ্য। অর্থাৎ ইচ্ছে করেই ওই টাকা তিনি টিপস হিসেবে দিয়েছিলেন।

রেস্তোঁরা মালিক মাইক জেরেলা যখন ওই ব্যক্তির কাছে পরিচয় জানতে চান, তিনি পরিচয় বলেননি। নিজেকে লুকিয়েই সাহায্য করেছেন তিনি। জেরেলা জানিয়েছেন, ওই টাকা আটজন রেস্তোরাঁর কর্মী ও কয়েকজন কিচেন কর্মীদের মধ্যে ভাগাভাগি করে দিয়ে দেওয়া হয়েছে

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*