হ্যাটট্রিক জয়ে চোখ পাকিস্তানের, থামাতে চায় আফগানিস্তান

দুর্দান্ত দু’টি জয় দিয়ে চলমান টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে যাত্রা শুরু করে পাকিস্তান ক্রিকেট দল। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারতকে হারানোর পর নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষেও জয় তুলে নেয় পাকিস্তান। এবার হ্যাটট্রিক জয়ের লক্ষ্য নিয়ে আগামীকাল আফগানিস্তানের মুখোমুখি হচ্ছে পাকিস্তান।

তৃতীয় জয় তুলে নিতে পারলে সেমিফাইনালের দ্বারপ্রান্তে পৌঁছে যাবে বাবর আজমের দল। অন্য দিকে পাকিস্তানের জয়রথ থামিয়ে সুপার টুয়েলভে টানা দ্বিতীয় জয় তুলে নিতে চায় আফগানিস্তান।দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে গ্রুপ-২-এ পাকিস্তান-আফগানিস্তানের ম্যাচটি বাংলাদেশ সময় রাত ৮টায় শুরু হবে।

সুপার টুয়েলভে প্রথম ম্যাচে পাকিস্তানের প্রতিপক্ষ ছিল ভারত। এ ম্যাচ নিয়ে চাপটা বেশিই ছিল পাকিস্তানের। কারণ বিশ্বকাপের মঞ্চে আগের ১২ দেখায় কখনোই ভারতকে হারাতে পারেনি পাকিস্তান। অবশেষে আনলাকি থার্টিন ম্যাচে ভাগ্য ফিরল পাকিস্তানের।

মাঠের পারফরমেন্সে এক কথায় ভারতকে উড়িয়ে দিয়েছে পাকিস্তান। ম্যাচ শেষে ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলিও শিকার করেছেন, টিম ইন্ডিয়াকে উড়িয়ে দিয়েছে পাকিস্তান। ১০ উইকেটের বিশাল জয় দিয়ে বিশ্বকাপ মঞ্চে ভারতের বিপক্ষে প্রথম জয়ের স্বাদ নিতে সক্ষম হয়েছে পাকিস্তান।

ভারতের বিপক্ষে দারুন জয়ের পর নিউজিল্যান্ডকে বিধ্বস্ত করে পাকিস্তান। ৫ উইকেটে ম্যাচ জিতে বাবর আজমের দল। প্রথমে ব্যাট করে ৮ উইকেটে ১৩৪ রান করে নিউজিল্যান্ড। ১৩৫ রানের টার্গেট স্পর্শ করতে গিয়ে একসময় চাপে পড়েছিল পাকিস্তান। কিন্তু সাত নম্বরে নেমে ১২ বলে ২৭ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলে পাকিস্তানকে দারুন এক জয় এনে দেন আসিফ আলি।

টানা দুই জয়ে আত্মবিশ্বাসে টগবগ করছে পাকিস্তান। এবার দলের লক্ষ্য হ্যাটট্রিক জয়। সেমিফাইনালের পথটা মসৃণ করতে চান অধিনায়ক বাবর আজম, ‘জয়ের ধারায় থাকতে পারলে বিষয়টা দারুন হবে। টানা তিন ম্যাচ জিততে পারলে সেমিফাইনালের পথেও এক ধাপ এগোতে পারবো আমরা।’

অন্য দিকে দুই স্পিনার মুজিবুর রহমান ও রশিদ খানের স্পিন ভেল্কিতে বিশাল জয়ে এবারের বিশ্বকাপ শুরু করে আফগানিস্তান। বাছাই পর্বে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হওয়া স্কটল্যান্ডকে ১৩০ রানের বড় ব্যবধানে হারায় আফগানরা। টি-টোয়েন্টিতে নিজেদের ক্রিকেট ইতিহাসে সবচেয়ে বড় ব্যবধানে জয়ের নয়া রেকর্ড গড়ে আফগানিস্তান।

শুধুমাত্র বোলারই নয়, আফগানিস্তানের ব্যাটাররাও সফল ছিলেন। নাজিবুল্লাহ জাদরানের ৩৪ বলে ৫৯, রহমানউল্লাহ গুরবাজের ৩৭ বলে ৪৬ এবং হজরতুল্লাহ জাজাইর ৩০ বলে ৪৪ রানের সুবাদে ২০ ওভারে ৪ উইকেটে ১৯০ রানের বড় সংগ্রহ পায় আফগানিস্তান। এরপর মুজিবের ৫ ও রশিদের ৪ উইকেট শিকারে মাত্র ৬০ রানে অলআউট হয় স্কটল্যান্ড।

জয় দিয়ে টুর্নামেন্ট শুরু করতে পারায় আত্মবিশ্বাসী হয়েই এবার পাকিস্তানের বিপক্ষে মাঠে নামছে আফগানিস্তান। যা পাকিস্তানের বিপক্ষে সহায়ক হবে বলে মনে করেন আফগান অধিনায়ক মোহাম্মদ নবি। তিনি বলেন, ‘বিশাল জয়ে টুর্নামেন্ট শুরু করতে পেরে আমার দারুন খুশি।

এই জয় পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচে সহায়ক হবে। পাকিস্তান দারুন ফর্মে আছে। তবে আমাদের লক্ষ্য থাকবে জয় তুলে নেয়া।টি-টোয়েন্টিতে এখন পর্যন্ত মাত্র একবার মুখোমুখি হয়েছে পাকিস্তান ও আফগানিস্তান। ২০১৩ সালে শারজাহতে হওয়া ওই ম্যাচে ৬ উইকেটে জিতেছিল পাকিস্তান।তবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে এই প্রথম মুখোমুখি হচ্ছে পাকিস্তান ও আফগানিস্তান।

পাকিস্তান : বাবর আজম (অধিনায়ক), শাদাব খান, আসিফ আলী, ফখর জামান, হায়দার আলী, হারিস রউফ, হাসান আলী, ইমাদ ওয়াসিম, মোহাম্মদ হাফিজ, মোহাম্মদ নওয়াজ, মোহাম্মদ রিজওয়ান, মোহাম্মদ ওয়াসিম জুনিয়র, সরফরাজ আহমেদ, শাহিন শাহ আফ্রিদি ও শোয়েব মালিক।

আফগানিস্তান : মোহাম্মদ নবি (অধিনায়ক), রহমানুল্লাহ গুরবাজ, হযরতউল্লাহ জাজাই, উসমান গনি, মোহাম্মদ শাহজাদ, হাসমতউল্লাহ শাহিদী, আসগর আফগান, গুলবাদিন নায়েব, নাজিবুল্লাহ জাদরান, করিম জানাত, রশিদ খান, মুজিব উর রহমান, হামিদ হাসান, ফরিদ আহমেদ মালিক ও নবীন উল হক।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*