স্বামীকে ডিভোর্স দিয়ে সৎ ছেলেকে বিয়ে করলেন অন্তসত্ত্বা মা

মারিনা বালমাশেভা, একজন রাশিয়ান ব্লগার। থাকেন ক্রাসনোদার ক্রাই অঞ্চলে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বেশ জনপ্রিয় মারিনা সম্প্রতি তার স্বামীকে তালাক দিয়ে সৎ ছেলেকে বিয়ে করেছেন! শুধু বিয়ে নয় তিনি সন্তানসম্ভবাও, এবং তার ছেলেই সেই অনাগত সন্তানের বাবা!

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম ডেইলি মেইলের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২০০৭ সালে অ্যালেক্সি নামে এক ব্যক্তির সঙ্গে বিয়ে হয় মারিনার। অ্যালেক্সির এর আগে একবার বিয়ে করেছিলেন। সেই বিয়ে ভেঙে যাওয়ার পর মারিনা তার জীবনে আসেন।

মারিনার সঙ্গে যখন বিয়ে হয় তখন অ্যালেক্সির দুটি ছেলে ছিল; যার মধ্যে একজন ভ্লাদিমির ভয়া শেভিরিন। অ্যালেক্সি ও মারিনা এক দশকের বেশি সময় ধরে সংসার করেন। এমনকি তারা চারটি সন্তান দত্তকও নেন।তবে মারিনা নিজের গর্ভে সন্তান চাইছিলেন। কিন্তু কোনো কারণে তার সন্তান হচ্ছিল না।

এ কারণে অ্যালেক্সির সঙ্গে তার সম্পর্কে ফাটল ধরে। এরই মধ্যে সৎ ছেলে ভ্লাদিমিরের সঙ্গে মারিনার সম্পর্ক তৈরি হয়। তাদের মধ্যে শারীরিকভাবেও সম্পর্ক হয়। মারিনার অনাগত সন্তান তারই ফল।ডেইলি মেইল আরও জানায়, ছেলের সঙ্গে সম্পর্ক গভীরে চলে গেলে দাম্পত্য ভেঙে বিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নেন মারিনা।

তিনি অ্যালেক্সিকে তালাক দেন। তালাক কার্যকর হওয়ার পর ভ্লাদিমিরকে বিয়ে সিদ্ধান্ত নেন মারিনা। এ বছরই বিয়ের চিন্তা ছিল মারিনা-ভ্লাদিমিরের। কিন্তু করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাবের কারণে তা সম্ভব হচ্ছিল না। সম্প্রতি তারা বিয়ে রেজিস্ট্রি করেছেন।

বিচ্ছেদের পর অ্যালেক্সি তার পাঁচ সন্তানকে নিজের কাছেই রাখার অনুমতি পেয়েছেন। মারিনা তাদের সঙ্গে দেখা করতে পারলেও সোশ্যাল মিডিয়ায় কোনো ছবি ভিডিও শেয়ার করতে পারবেন না, এমনটাই নির্দেশ দিয়েছে সে দেশের চাইল্ড সার্ভিস।

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *