সেনা সরাতে চীনকে চাপ ভারতের: পাত্তা দিচ্ছে না চীন !

সীমান্তে সেনা অবস্থানকে কেন্দ্র করে প্রায় তিন মাসের ব্যবধানে ফের বৈঠকে বসল ভারত ও চীন। প্রায় ৯ ঘন্টা ধরে দু’দেশের কমান্ডার পর্যায়ে চলা এটি ছিল লাদাখ ইস্যুতে ১২তম বৈঠক। দু’দেশের সীমান্তে হট স্প্রিং ও গোগরা এলাকায় সেনা সরানো নিয়ে শনিবার সন্ধ্যার বৈঠকে

আলোচনা হয়েছে বলে আনন্দবাজার পত্রিকার খবরে বলা হয়েছে। আগের বৈঠকে হট স্প্রিং, গোগরা থেকে চীনা সেনা প্রত্যাহারের বিষয়টি ছাড়াও ৯০০ কিলোমিটার দীর্ঘ ডেপসাং উপত্যকায় চীনা সেনাদের সামরিক নির্মাণ সরিয়ে ফেলার দাবি জানিয়েছিল ভারত।

কিন্তু এবারের বৈঠকে পরিকল্পিতভাবেই ডেপসাং উপত্যকার নির্মাণের বিষয়টি আলোচ্যসূচিতে রাখা হয়নি বলে ভারতীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে। প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের দাবি, এই মুহূর্তে ভারতের লক্ষ্য হল গোগরা ও হট স্প্রিং সমস্যার সমাধান করা।

কারণ ডেসপাং উপত্যকার বিষয়টি জটিল ও সময়সাপেক্ষ। তাই এবার সেটিকে আলোচনায় রাখা হয়নি। সূত্রের মতে, এবারের বৈঠকে দু’দেশের সীমান্ত এলাকা থেকে সেনা সরানোর জন্য দাবি তোলে চীন। কিন্তু ভারতের পক্ষে স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হয়েছে,

আগে গোগরা ও হট স্প্রিং এলাকা থেকে সেনা সরাতে হবে চীনকে, তবেই পরবর্তী পদক্ষেপ নেবে ভারত। এ ছাড়া বৈঠকে দু’দেশ কোন এলাকা পর্যন্ত ফ্ল্যাগ মার্চ করবে, তা নিয়েও আলোচনা হয়েছে। চীনের সেনা মোতায়েন করার বিষয়টিই ভারতের প্রধান মাথাব্যথার কারণ।

এর আগেও একাধিক বৈঠক হয়েছে, সেখানে শুধু আলোচনাই হয়েছে কিন্তু কোনও সমাধান আসেনি। এক বছরেরও বেশি সময় ধরে সীমান্তে সেনা সংঘ’র্ষে ভারত-চীনের মধ্যে উ’ত্তে’জ’না চলছে। এসব সংঘর্ষে বেশ কয়েকজন ভারতীয় সেনা নিহ’ত হয়েছেন।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*