সেনা প্রত্যাহারের সাথে সাথেই তালেবানের অ্যাকশন শুরু !

মার্কিন সেনা প্র’ত্যাহারের সুযোগে আফ’গানি’স্তানে নিজে’দের প্রভাব বাড়াচ্ছে তা’লেবা’ন। দেশটিতে নিযুক্ত জাতিসংঘের বিশেষ দূত দেবোরাহ লিয়ন্স গতকাল মঙ্গলবার নিরাপত্তা পরিষদে জানিয়েছেন, গত মে মাস থেকে আফ’গানি’স্তানের মোট ৩৭০টি জেলার মধ্যে ৫০টিরও বেশি জেলা নিজেদের দখলে নিয়েছে তা’লেবা’নরা।

লিয়ন্স বলেন, ‘কাছাকাছি সময়ে হোক বা দূর ভবিষ্যতে, সং’ঘ’র্ষ যত বেশি বাড়বে, আরো অনেক বেশি দেশের জন্য সেটা নিরাপত্তাহীনতা সৃষ্টি করবে।’ প্রতিদিনিই সরকারি বাহিনীর সঙ্গে তালেবানের সং’ঘ’র্ষের ঘটনা ঘটছে। নিরাপত্তা পরিষদের কাছে এই পরিস্থিতিকে ‘বিপ’জ্জ’নক’ উল্লেখ করেছেন জাতিসংঘের বিশেষ প্রতিনিধি ডেবোরাহ লিয়ন্স।

তিনি বলেন, ‘সং’ঘা’ত বেড়ে যাওয়ার মানে হলো কাছের এবং দূরের অন্য অনেকগুলো দেশেরও নিরাপত্তাহীনতা বেড়ে যাওয়া।’ যুক্তরাষ্ট্র ও ন্যা’টো আগামী ১১ সেপ্টেম্বরের মধ্যে তাদের সকল সেনা আফ’গানি’স্তান থেকে সরিয়ে নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে। পেন্টাগনের মুখপাত্র জন কিরবি আফ’গানি’স্তানের পরিস্থিতিকে ‘গতিশীল’ বলে বর্ণনা করেছেন।

তালে’বা’নের আ’ধিপ’ত্য বেড়ে যাওয়ার পরেও সেনা প্র’ত্যাহারের সিদ্ধান্তে কোনো পরিবর্তন আনেনি পেন্টাগন। তবে প্রত্যাহারের ‘গতি ও সুযোগ’ পরিবর্তনের পরিস্থিতি এখনও রয়েছে। নিউ ইয়র্কে জাতিসংঘের ১৫ সদস্যের নিরাপত্তা পরিষদকে ডে’বোরাহ বলেন, ক’ট্ট’রপন্থী তা’লেবা’নের সাম্প্রতিক অ’গ্র’যাত্রা একটি ‘চ’রম সামরিক অ’ভিযানের’ ফলাফল।

তিনি বলেন, ‘যে জেলাগুলো তারা দখলে নিয়েছে সেগুলো বিভিন্ন প্রাদেশিক রাজধানীকে ঘিরে রয়েছে। এর মানে হলো যখন বিদেশি বাহিনী চলে যাবে তখনই রাজধানীগুলো দখলে নেওয়ার জন্য তা’লেবা’ন তাদের অবস্থান তৈরি করছে।’ এদিকে তা’জিকি’স্তানের সঙ্গে আফ’গানি’স্তানের প্রধান সীমান্ত শির খান বন্দর দখল করে নিয়েছে দেশটির স’শ’স্ত্র সংগঠন তা’লেবা’ন।

গতকাল মঙ্গলবার এক প্রাদেশিক কর্মকর্তার বরাত দিয়ে আলজাজিরা এ তথ্য জানিয়েছে। প্রতিবেদনে বলা হয়, তা’লেবা’নের আ’ক্রম’ণের মুখে আ’ফগান বাহিনীর সদস্যরা শির খান বন্দরসংলগ্ন নিরাপত্তাচৌকি থেকে পালিয়েছে। এমনকি অনেকে সীমান্ত পার হয়ে তাজি’কি’স্তানে অবস্থান নিয়েছেন।

শির খান বন্দর আফ’গানি’স্তানের সী’মান্তবর্তী কু’ন্দুজ শহর থেকে প্রায় ৫০ কিলোমিটার উত্তরে অবস্থিত। মার্কিন সামরিক বাহিনীসহ বিদেশি সেনাদের চলমান প্রত্যাহার প্র’ক্রিয়ার মধ্যেই এই ঘটনাকে তা’লেবা’নের সর্বোচ্চ অর্জন হিসেবে দাবি করছে অনেকে।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*