সাকিব নয় লিটনকে বেছে নিলেন হার্শা

নিজেকে বদলে ওয়ানডে এবং টেস্টে এখন দেশের সেরা ব্যাটার হয়ে উঠেছেন লিটন দাস। তবে টি-টোয়েন্টিতে এখনও নিজের সামর্থ্যের পুরোটা দিতে পারেননি ডানহাতি এই ব্যাটার। তবে ২০ ওভারের ক্রিকেটেও উন্নতি ছাপ দেখা যাচ্ছে লিটনের ব্যাটিংয়ে। বাজে পারফরম্যান্সের কারণে সর্বশেষ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর দল থেকে বাদও পড়েছিলেন তিনি। তবে বছর না পেরোতেই হয়ে উঠেছেন দলের অন্যতম ভরসার নাম।

দল হিসেবে ভালো করতে না পারলেও ব্যক্তিগতভাবে নিজেকে মেলে ধরার সুযোগ থাকছে লিটনের সামনে। টি-টোয়েন্টিতে নিজেকে প্রমাণের জন্য অস্ট্রেলিয়া বিশ্বকাপ লিটনের জন্য হতে পারে ভবিষ্যত ভাগ্য পরিবর্তনের। দারুণ সব শটে সমর্থকদের মন জয় করা লিটনকে নিয়ে এই বিশ্বকাপে বাজ ধরছেন হার্শা ভোগলে।

লিটনকে টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশের সেরা ক্রিকেটার আখ্যা দিয়ে ক্রিকবাজের প্লেয়ার টু ওয়াচ আউট ভিডিওতে হার্শা বলেন, ‘সত্যিকার্থে আমি বিশ্বাস করি এখন টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশের সেরা খেলোয়াড় লিটন দাস।

ক্যারিয়ারের বেশিরভাগ সময় টি-টোয়েন্টিতে ওপেন করলেও আরব আমিরাত সফর থেকে তিন বা চারে ব্যাটিং করছেন লিটন। নিউজিল্যান্ডের মাটিতে ত্রিদেশীয় সিরিজেও ওপেনিংয়ে দেখা যায়নি তাকে। বিশ্বকাপের মঞ্চে তিনে ব্যাটিং করতে দেখা যাবে লিটনকে, এটা প্রায় নিশ্চিত। তবে তাকে কেন তার জায়গা থেকে সরিয়ে দেয়া হয়েছে সেটা বুঝতে পারছেন না হার্শা।

তিনি বলেন, ‘আমি ভাবতে পারছি না কেন তারা লিটনকে তার পজিশন থেকে নিচে নামিয়ে দিলো। টপ অর্ডার থেকে কেন অন্য কোথাও সরিয়ে নেয়া হলো? সে তো টি-টোয়েন্টির সেরা ব্যাটার। বাংলাদেশ থেকে আমি লিটন দাসকে বেছে নেবো।’

পরিসংখ্যান বা অর্জনে বাংলাদেশের ইতিহাসের সেরা ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান। কদিন আগে মোহাম্মদ নবিকে টপকে টি-টোয়েন্টির অলরাউন্ডারদের র‌্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষে উঠে এসেছেন তিনি। তবে টি-টোয়েন্টিতে সাকিব আগের জায়গায় নেই বলে মনে করেন হার্শা।

তিনি বলেন, ‘আমি কিভাবে সাকিবের নাম ম্যানশন না করি। আমি সবসময় আমার দলে সাকিবকে রাখি। আমার মনে হয় টি-টোয়েন্টিতে আপনি যখন সাকিবের কথা বলবেন তখন আপনাকে দেখতে হবে সে কিভাবে ব্যাটিং করে, ইনজুরি, ভ্রমণ এবং সে কতটা ম্যাচ খেলছে। আমার মনে হয় না ১২-১৪ মাস আগে সাকিব যেমন ছিল এখন তেমন আছে। ১২ বা ১৪ বা ২০ মাস আগে হলে আমি নিশ্চিতভাবে ভুল প্রমাণিত হতাম।

Sharing is caring!