সাকিবের সাজা নির্ভর করছে যার ওপর

মাঠে আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত মানতে না পেরে তেড়ে গিয়ে স্ট্যাম্প ভাঙেন মোহামেডান দলের অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। এমনকি আম্পায়ারের সঙ্গে বাক-বিতর্কে জড়ান তিনি। তবে এমন ঘটনার পর কী শাস্তি পেতে চলেছেন এই বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার?

চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী আবাহনীর সেরা ব্যাটসম্যান মুশফিকের উইকেট যে মোহামেডানের জন্য কতটা গুরুত্বপূর্ণ ছিল সেটি মাঠে দেখিয়েছেন মোহামেডানের অধিনায়ক সাকিব। ৫ম ওভারের শেষ বলে নিশ্চিত এলবিডব্লিউরের জন্য আবেদন করলে সেটি নাকচ করে দেন আম্পায়ার।

তাঁর এই সিদ্ধান্তকে মানতে না পেরে সঙ্গে সঙ্গেই লাথি দিয়ে স্ট্যাম্প ভাঙতে দেখা যায় সাকিবকে। শুধু একবার নয়, পরবর্তীতে আরও একবার স্ট্যাম্প ভাঙতে দেখা যায় তাঁকে। ক্রিকেট মাঠে এমন অপেশাদারিত্ব আচরণ বিসিবি কিভাবে দেখছে সেটিই বড় কথা।

এই ইস্যু নিয়ে কথা বলেছেন সিসিডিএমের চেয়ারম্যান কাজী ইনাম। তিনি বলেন সাকিব শাস্তি হবে কী হবে না সেটি ম্যাচ রেফারির রিপোর্টের উপর নির্ভর করছে। “দেখুন খেলার মাঠে অনেক কিছু হয়। আজকে আবাহনী-মোহামেডানের ম্যাচে কিছু এক্সসাইটমেন্ট ছিল এবং কিছু অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনাও ছিল।

এটা দুর্ভাগ্যবশত বলব। ক্রিকেটে ‘হিট অব দ্য মোমেন্টে’ এসে যেতে পারে কিন্তু খেলোয়াড়দের উচিত তাঁদের ইমোশন আরেকটু ভালোভাবে কন্ট্রোল করা। এটা আন্তর্জাতিক খেলা না হলেও যেহেতু লিস্ট এ ক্রিকেট ম্যাচ, এখানে অনেক আইন রয়েছে।

“আমাদের এখানে এটা যারা দেখে (ম্যাচ রেফারি, আম্পায়ার) তাঁরা আজকে একটি রিপোর্ট দিবে। আমরা আশা করছি আজকেই সেটি হাত পাব। সেটির উপর ভিত্তি করেই আমরা পরবর্তী পদক্ষেপ নিব।” ঘরোয়া ক্রিকেটে আম্পায়ারদের নির্দিষ্ট দলের প্রতি পক্ষপাতিত্ব নতুন নয়।

এর আগেও অনেকবারই ম্যাচ পাতানোর অভিযোগ উঠেছে। সিসিডিএম চেয়ারম্যান জানান, আম্পায়ারের সিদ্ধান্তকে সম্মান জানিয়ে ম্যাচ চালিয়ে যাওয়া উচিত। “দেখুন আমাদের খেলা যেটা হচ্ছে সেগুলো কিন্তু ফেসবুক এবং ইউটিউবে দেখানো হচ্ছে।

ক্রিকেট সবসময় ভদ্রলোকের খেলা। এই খেলায় আম্পায়ারের সিদ্ধান্তই কিন্তু চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত। হয়তো তাঁদের কিছু সিদ্ধান্ত আপনার পছন্দ নাও হতে পারে কিন্তু বাস্তবতা হচ্ছে আপনাকে সেটি মেনে খেলা চালিয়ে যেতে হবে।

ডিসিশন কী ছিল সেটা আমি জানি না তবে আম্পায়ারের সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত। অবশ্য এই ঘটনার পর ম্যাচ শেষে ক্ষমা চেয়েছেন সাকিব। এমনকি ভবিষ্যতে এমন অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার পুনরাবৃত্তিও হবে না বলে জানান তিনি।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*