সর্বোচ্চ শিরোপা জয়ী আর্জেন্টিনা

কোপার ইতিহাসে নতুন এক রোমাঞ্চকর ম্যাচ ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা। বিশ্বজুড়ে উন্মাদনা। ফুটবল দুনিয়া ভাগ হয়ে গেছে দুই ভাগে। একদিকে আর্জেন্টিনার লিওনেল মেসি অন্যদিকে ব্রাজিলের নেইমার। কে হাসবে শেষ হাসি? কার ঘরে উঠবে শিরোপা? অবশেষে হলো প্রতীক্ষার অবসান। আরাধ্য ট্রফি ধরা দিল। স্বপ্ন পূরণ হলো লিওনেল মেসির।

দেশের হয়ে প্রথম শিরোপা জিতলেন ফুটবলের এই রাজপুত্র। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ব্রাজিলকে ১-০ গোলে হারিয়ে কোপা আমেরিকার শিরোপা ঘরে তুলল আর্জেন্টিনা। অবসান হলো ২৮ বছরের অপেক্ষা। সেই সঙ্গে কোপা আমেরিকায় সর্বাধিক ট্রফি জয়ীদের তালিকায় উরুগুয়ের সঙ্গে যুক্ত হলো আর্জেন্টিনার নাম। দুই দলই সর্বোচ্চ ১৫ আসরে ট্রফি তুলেছে নিজেদের ঘরে।

এ ছাড়া কোপা আমেরিকায় ৯টি ট্রফি নিজেদের ঘরে তুলেছে ব্রাজিল। প্যারাগুয়ে ২টি ট্রফি, চিলি ২টি ট্রফি, পেরু ২টি ট্রফি, কলম্বিয়া ১টি ট্রফি ও বলিভিয়া ১টি ট্রফি তুলেছে নিজেদের ঘরে। আজকের ফাইনাল ম্যাচের ২২ মিনিটে মারাকানাকে স্তব্ধ করে দিয়ে লিড নেয় আর্জেন্টিনা। ডি পলের লং পাসে বুদ্ধিদীপ্ত ফিনিশিং করেন ডি মারিয়া।

গোলকিপারের মাথার ওপর দিয়ে বল পাঠিয়ে দেন জালে। উল্লাসে ফেটে পড়ে আর্জেন্টাইনরা। প্রথমার্ধের ওই গোল আর শোধ করতে পারেনি ব্রাজিল। ফলে এগিয়ে থেকে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী আর্জেন্টিনার বিপক্ষে ১-০ গোলে পিছিয়ে থেকে প্রথমার্ধ শেষ করে ব্রাজিল। পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয়ার্ধে পরিকল্পনায় পরিবর্তন আনেন সেলেসাও কোচ তিতে।

ফ্রেডকে উঠিয়ে রবার্তো ফিরমিনোকে নামিয়ে আরও আক্রমণাত্মক খেলার আভাস দেয় স্বাগতিকরা। এই পরিবর্তনে আক্রমণে ধার বাড়ে তাদের। ৫২ মিনিটে জালে বল জড়ান রিচার্লিসন। কিন্তু দুর্ভাগ্যজনকভাবে বাতিল হয়ে যায় সে গোল। রেফারি অফসাইডের বাঁশি বাজালে হতাশ হতে হয় তাদের।

এর ২ মিনিট পর আবারও সুযোগ পেয়েছিলেন রিচার্লিসন। কিন্তু আর্জেন্টাইন গোলরক্ষক এমিলিয়ানো মার্টিনেজের নৈপুণ্যে এ যাত্রায়ও গোল করতে পারেননি এই ফরোয়ার্ড। শেষ পর্যন্ত ১-০ গোলেই শিরোপা খরা কাটে আর্জেন্টিনার। জয়োল্লাস করে মাঠ ছাড়ে স্কালোনি শিষ্যরা।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*