শীতে নিয়মিত গোসল ডেকে আনতে পারে বিপদ!

অনেকেই শীতকালে নিয়মিত গোসল করেন না বা করলেও গরম পানি ব্যবহার করে থাকেন। তবে নিয়মিত গোসল না করার ব্যাপারটা আমরা কেউই সহজভাবে নিতে পারি না। তবে এই ধারণা ভুল প্রমাণিত করে নিয়মিত গোসল না করাকেই স্বাস্থ্যের জন্য ভালো বললেন গবেষকরা।

অবাক লাগছে? তাই না। কিন্তু এটাই সত্যি। চর্মরোগ গবেষকরা বলছেন, নিয়মিত গোসল নয় বরং নিয়মিত গোসল না করাই ভালো। সারা পৃথিবী জুড়েই এ ব্যাপারে একমত চিকিৎসকরা। প্রতিদিন গোসল করলে ত্বকের বেশ ক্ষতি হতে পারে। আর তাই প্রতিদিন গোসলের বিরুদ্ধেই মত তাদের।

শীতকালের সকালও তার ব্যতিক্রম নয়। মূলত শরীর ময়লা যেন না হয় সেজন্যই আমরা গোসল করে থাকি। তবে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, শরীরের ময়লার সঙ্গে গোসলের কোনো সম্পর্ক নেই। বোস্টনের এক চর্মরোগ বিশেষজ্ঞ বলেন, প্রতিদিন গোসল করাটা অনেকটাই সামাজিক নিয়ম।

এর সঙ্গে ময়লার কোনো সম্পর্ক নেই। কেননা শরীরের নিজস্ব ক্রিয়াই ত্বককে ময়লা হওয়ার হাত থেকে বাঁচায়। সেটা গোসল করলেও হয়, না করলেও হয়। সুতরাং ময়লা তাড়াতে গোসলের দাওয়াই ততটা কার্যকরী নয়। অবশ্যই একেবারে গোসল না করার পক্ষে যুক্তি দেখাননি তিনি।

প্রতিদিন গোসল না করার পক্ষে আরও একটি যুক্তি দেখাচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। সেটি হল ব্যাকটেরিয়ার ধ্বংস হওয়া। শরীর তার নিজের দরকারে কিছু ভাল ব্যাকটেরিয়ার জন্ম দেয়। যা টক্সিনের হাত থেকে ত্বককে বাঁচায়। কিন্তু প্রতিদিন গোসলের ফলে সেগুলোর মৃ’ত্যু হয়।

তাতে ক্ষতি হয় শরীরেরই। এছাড়া নখেরও ক্ষতি হয়। কেননা গোসল করার সময় নখ পানি শোষণ করে। যা ধীরে ধীরে নখকে নষ্টের দিকে ঠেলে দেয়। তাহলে শীতে গোসল নিয়ে যারা ভীত ছিলেন তারা এবার বেরিয়ে আসুন। আর নিয়মিত গোসল করা নিয়ে ভয় পাওয়ার কিছু নেই।

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *