ম্যাচ কোথায় ফসকে গেছে জানালেন সোহান

পাকিস্তানের বিপক্ষে ২১ রানে হেরে ত্রিদেশীয় সিরিজ শুরু করেছে বাংলাদেশ দল। দুই দলের পারফরম্যান্সে পার্থক্যটা স্পষ্ট। এই ম্যাচে পাকিস্তানের সঙ্গে লড়াই জমাতেই ব্যর্থ হয়েছে নুরুল হাসান সোহানের দল।

এদিন টস জিতে বোলিংয়ে নেমে পাকিস্তানকে ১৬৭ রানে আঁটকে দিয়ে ভালো কিছুরই ইঙ্গিত দিয়েছিল বাংলাদেশ। যদিও ব্যাটারদের ব্যর্থতায় হারতে হয়েছে এই ম্যাচে। লিটন দাসের ৩৫, আফিফ হোসেনের ২৫ রান ছাড়া টপ অর্ডার আর মিডল অর্ডারে দলের হাল ধরতে পারেননি কেউই।

শেষের দিকে একাই বাংলাদেশের ইনিংস টেনেছেন ইয়াসির আলী রাব্বি। তিনি শেষ পর্যন্ত অপরাজিত ছিলেন ২১ বলে ৪২ রান। বাকিদের ব্যাটিং ছিল যাচ্ছেতাই। এমন পারফরম্যান্সের পর সোহান জানিয়েছেন, দ্রুত ৪ উইকেট পড়ে যাওয়াই কাল হয়েছে তাদের।

এ প্রসঙ্গে লিটন বলেন, ‘দ্রুত দুটি উইকেটের পর লিটন আর আফিফ একটি জুটি গড়েছিল। আমার কাছে মনে হয়েছে উইকেটটা ভালো ছিল। তিন চার ওভারের মধ্যে আমরা চারটা উইকেট হারিয়েছি। আমার মনে হয় ম্যাচের পার্থক্যটা এখানেই হয়ে গেছে। এখানে যদি আমরা আরেকটু ভালো করতে পারতাম তাহলে হয়তো গল্পটা ভিন্ন হতো।’

বাংলাদেশের বোলারদের মধ্যে তাসকিন আহমেদ ২৫ রানে ২ উইকেট পেয়েছেন। মেহেদী হাসান মিরাজ নিয়েছেন ১৩ রানে এক উইকেট। তাদের মধ্যে হতাশ করেছেন অভিজ্ঞ মুস্তাফিজুর রহমান আর হাসান মাহমুদ। মুস্তাফিজ ৪ ওভারে ৪৮ রান দিয়ে ছিলেন উইকেটশূন্য। আর হাসান ৪২ রান দিয়ে নিয়েছেন এক উইকেট। সোহান মনে করেন বোলিংয়ে উন্নতির জায়গা রয়েছে।

আমাদের পেস বোলাররা কঠোর পরিশ্রম করছে। কিছু কিছু জায়গায় উন্নতির চেষ্টা করছে। সব মিলিয়ে ভালো বোলিংয়ের চেষ্টা করছে। কিছু জায়গায় অবশ্যই উন্নতির চেষ্টা করছে। যেমন উইকেট ছিল আমার কাছে মনে হয়েছে আমাদের বোলাররা চেষ্টা করেছে ভালো করার। উন্নতির জায়গা অবশ্যই আছে।

Sharing is caring!