মেসিকে দেশের প্রেসিডেন্ট হিসেবে চায় আর্জেন্টিনার জনগণ

আর্জেন্টাইন ফুটবল মহাতারকা লিওনেল মেসির কোটি কোটি ভক্ত ছড়িয়ে আছে বিশ্বজুড়ে।ওন্য সব দেশের মতোই নিজ দেশ আর্জেন্টিনাতেও তিনি তুমুল জনপ্রিয়। বিশ্বকাপ জয়ের পর সেই জনপ্রিয়তা আরো বেড়ে এমন পর্যায়ে গেছে যে তাকে আর্জেন্টিনার প্রেসিডেন্ট হিসেবে দেখতে চায় দেশটির জনগণের একটি বড় অংশ। সম্প্রতি এমন তথ্য জানিয়েছে ফুটবল বিষয়ক বিখ্যাত সংবাদমাধ্যম ‘মার্কা’।


আর্জেন্টিনা এবার বিশ্বকাপ জিতেছেন ৩৬ বছর পর। এমন একটা সময়ে যখন দেশটা অর্থনৈতিকভাবে দেশটা খুব একটা ভালো নেই। তাই বিশ্বকাপ জয়ের পর মেসির প্রতি দেশের মানুষের আস্থা বেড়েছে।আর্জেন্টিনার তথ্য-বিশ্লেষণী ও জনমত জরিপ প্রতিষ্ঠান ‘জ্যাকোব্বে অ্যান্ড অ্যাসোসিয়াদোস’-এর বরাত দিয়ে স্প্যানিশ গণমাধ্যমটি আরো জানায়, ৪৩.৭ শতাংশ আর্জেন্টাইন নাগরিক মেসিকে দেশের প্রেসিডেন্ট হিসেবে ভোট দিতে চায়। যেখানে বর্তমান প্রেসিডেন্ট আলবার্তো ফার্নান্দেজ পেয়েছেন মাত্র ১.৩ শতাংশ ভোট! ৩৭.৮ শতাংশ নাগরিক অবশ্য মেসিকে প্রেসিডেন্ট হিসেবে চায় না। ১৭.৫ শতাংশ আর্জেন্টাইন মেসিকে ভোট দেওয়ার বিষয়টি ভেবে দেখবে। আর ০.৯ শতাংশ কোনো মতামত দেয়নি।

এই বিশ্বকাপটিই নিঃসন্দেহে সবগুলোর সেরা পুরষ্কার। মেসিই যে সর্বকালের সেরা, সেই বিতর্কের মীমাংসায় তার কোটি কোটি ভক্ত এই ট্রফিটিকেই ‘প্রধান বিবেচ্য’ হিসেবে তুলে ধরেন। এর আগে গত রবিবার (১৮ ডিসেম্বর) আর্জেন্টিনা বিশ্বকাপ জয়ের পর প্রতিষ্ঠানটি এই জরিপ চালিয়েছে। কাতার বিশ্বকাপের সেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কারজয়ী মেসি টুর্নামেন্টে করেছেন ৭ গোল। অ্যাসিস্ট করেছেন ৩টিতে।এছাড়া বিশ্বকাপ নিয়ে দেশে ফেরার পর মেসিদের প্রেসিডেন্ট ভবনে আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন আলবার্তো ফার্নান্দেজ। কিন্তু মেসি বাহিনী তা সবিনয়ে প্রত্যাখ্যান করেছিল। এই সিদ্ধান্তকে সঠিক বলে মনে করে ৮২.৯ শতাংশ আর্জেন্টাইন। আর ১৫.৮ শতাংশ নাগরিক মনে করে সিদ্ধান্তটি ভুল ছিল।- মার্কা

Sharing is caring!