মুসলিম নারীরা ফুটবলার হতে চাইলেই হিজাব উপহার

নারী খেলোয়াড়দের ফুটবলে আগ্রহী করতে অনন্য এক উদ্যোগ নিয়েছে ফিনল্যান্ড ফুটবল ফেডারেশন। সব জাতিগোষ্ঠীর মানুষ যেন এই খেলায় আগ্রহ পায়, তা নিশ্চিত করতে মুসলিম নারী খেলোয়াড়দের হিজাব উপহার দিচ্ছে সংস্থাটি। ফিনল্যান্ড ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের নারী ফুটবল উন্নয়ন বিভাগের প্রধান হেইডি পিহলাজার বিশেষ উদ্যোগে এই কাজ চলছে।

তিনি জানিয়েছেন, যেসব খেলোয়াড় হিজাব পরতে আগ্রহী, তাদেরকে তারা হিজাব উপহার দেয়ার ব্যবস্থা করেছেন। এরই মধ্যে অনেকেই এই হিজাব নিয়েছেন। পিহলাজা জানান, সাংস্কৃতিক বৈসাদৃশ্য ও খরচের কারণে ফুটবলে আগ্রহ থাকা সত্ত্বেও অনেক শিশু খেলতে পারছে না।

ফিনল্যান্ডে অভিবাসীদের খেলাধুলায় আগ্রহী করাতেই এমন উদ্যোগ বলে জানান তিনি। এ ব্যাপারে পিহলাজা বলেন, ‘ফিনল্যান্ডে অভিবাসী মেয়েদেরকে ফুটবলে আনা খুব কঠিন। তাই আমরা সবাইকে আমন্ত্রণ জানানোর ব্যবস্থা করেছি। ধর্ম যা-ই হোক না কেন, কিংবা স্কার্ফ পরতে চাক বা না চাক সবাই এখানে আসতে পারবে।

পিহলাজার ধারণা, এভাবে হিজাব দিয়ে সবার মধ্যে ফুটবল খেলাটা ছড়িয়ে দেয়া সহজ হবে। অনেকেই এই প্রকল্পকে ইতিবাচকভাবে দেখছেন। আবার অনেকেই সমালোচনা করে বলছেন, ‘এই প্রকল্পের মাধ্যমে নারীদের নীচু করা হচ্ছে, ধর্মকে খেলায় টেনে আনা হচ্ছে।’

রাজধানীর হেলসিংকির ভান্তা অঞ্চলের ক্লাব ভিজেএসে খেলে নাস্রো বাহনান হালবাদে। গত এক বছর ধরে সে ফুটবল খেলছে। ১৩ বছর বয়সী এই কিশোরী হিজাব নিয়ে উচ্ছ্বাসের কথা জানিয়ে বলেন, ‘সাধারণ হিজাবের মতো এটি বাতাসে বেশি ওড়ে না, শার্টেও ঢুকিয়ে রাখতে হয় না। এমন উপহার পেয়ে আমি খুশি।’

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*