মুলা খাওয়ার উপকারিতা জেনে নিন!

শীতের সবজি মানেই নানা রঙের মুলার সমাহার বাজারে দেখতে পাওয়া যায়। অনেকে এ সবজিটি খেতে পছন্দ করেন না, আবার অনেকেই পছন্দ করেন। তবে এটি খুবই উপকারী একটি সবজি। বাজারে এরই মধ্যে উঠতে শুরু করেছে নানা ধরনের মৌসুমি সবজি। শীতকালে সবচেয়ে বেশি যেসব সবজি খাওয়া হয় তার মধ্যে অন্যতম হচ্ছে মুলা। স্বাদের পাশাপাশি এই সবজিটি গুণেও অনন্য। শীতের সময় নিয়মিত মুলা খেলে যেসব স্বাস্থ্য উপকারিতা পাওয়া যায়-

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়: মুলাতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি থাকায় এটি কফ এবং সর্দি প্রতিরোধ করে। পাশাপাশি এটি শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও বাড়ায়।
রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ: মুলায় পর্যাপ্ত পরিমাণে পটাশিয়াম থাকায় এটি রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে। যারা উচ্চ রক্তচাপের সমস্যায় ভুগছেন তাদের নিয়মিত মুলা খাওয়া প্রয়োজন।

হৃদরোগের ঝুঁকি কমায়: হৃৎপিণ্ড সুরক্ষা করতে পারে মুলা। এতে থাকা অ্যান্থোসায়ানিনস হৃৎপিণ্ড সুস্থ রাখতে ভূমিকা রাখে। এ কারণে বেশি মুলা খেলে হৃদরোগের ঝুঁকি কমে। এটি ভিটামিন সি, ফলিক অ্যাসিড ও ফ্লাভোনয়েডসের ভালো উৎস। এগুলোও হৃৎপিণ্ড সুস্থ রাখতে সাহায্য করে।

প্রচুর পরিমাণে ফাইবার: মূলায় প্রচুর পরিমাণে ফাইবার পাওয়া যায়। যারা নিয়মিত সালাদ হিসেবে মুলা খান, তাদের দেহে কখনও ফাইবারের ঘাটতি থাকে না।

হজম সহজ করে: মুলা খাবার হজমে সহায়তা করে। একই সঙ্গে এটি অ্যাসিডিটি, স্থূলতা, গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা এবং বমি বমিভাবের মতো সমস্যা দূর করতে ভূমিকা রাখে।
ত্বকের জন্য ভাল : ত্বক সজীব রাখতে প্রতিদিন মূলার রস খেতে পারেন। এতে ভিটামিন সি এবং ফসফরাস রয়েছে। যা ত্বককে ভালো রাখে।

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *