মুম্বাইয়ে আটক বিজেপি নেতা বাংলাদেশের রুবেল!

ভারতের মুম্বাইয়ের মালাড (ওয়েস্ট) আম্বোজওয়াদি এলাকার বাসা থেকে রুবেল যোনু শেখ নামে ২৪ বছর বয়সী একজনকে আটক করেছে মালবানি থানার পুলিশ। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি অবৈধভাবে ভারতে বসবাস করছেন এবং তিনি বাংলাদেশের নাগরিক। জানা গেছে, রুবেল যোনু শেখ বিজেপির উত্তর-পূর্ব মুম্বাই অঞ্চলের সংখ্যালঘু সেলের সভাপতির দায়িত্বেও আছেন।

মুম্বাই পুলিশ বলছে, বাংলাদেশের যশোর জেলার বোয়ালিয়া গ্রামের বাসিন্দা রুবেল শেখ। ২০১১ সালে অবৈধভাবে সীমান্ত পেরিয়ে তিনি ভারতে প্রবেশ করেন। পশ্চিমবঙ্গ হয়ে পরে মুম্বাইয়ে পাড়ি দেন এবং সেখানে বিজেপি দলের সঙ্গে যুক্ত হয়ে দলের কাজকর্ম করতে থাকেন।

এক সময় তাকে দলের মাইনিরিটি সেলের উত্তর-পূর্ব জেলার সভাপতির দায়িত্বও দেওয়া হয়। কিন্তু রুবেলের ব্যাপারে সন্দেহ হওয়ায় তার মুম্বাইয়ের মালাডের বাড়িতে গিয়ে অভিযান চালিয়ে পশ্চিমবঙ্গের উত্তর চব্বিশ পরগনা জেলার মালিপোতা গ্রাম পঞ্চায়েতের পক্ষ ইস্যু করা ‘রেসিডেন্সিয়াল সনদ’ এবং নদীয়া জেলার অন্তর্গত হাঁসখালীর

একটি স্কুলের পক্ষ থেকে দেওয়া স্কুলের সনদ’র হদিস পায় পুলিশ। ওই নথি যাচাইয়ের জন্য মুম্বাই পুলিশের সাব-ইন্সপেক্টর ছারুদট কোন্ডের নেতৃত্বে একটি দল পশ্চিমবঙ্গে এসে ওই সব জায়গায় গিয়ে তদন্তও চালায়। এতে দেখা যায় তার সবটাই ভুয়া। এর পরই গত ৩১ জানুয়ারি রুবেলকে গ্রে’ফতার করা হয়।

এ ব্যাপারে মুম্বাই পুলিশের সিনিয়র ইন্সপেক্টর ভালেরাও শেখর জানান, প্রায় এক দশক ধরে অবৈধভাবে রুবেল ভারতে বসবাস করছিলেন। ভুয়া ভারতীয় নথি তৈরির অভিযোগে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ওই ভুয়া নথি দিয়ে তিনি আধার কার্ড ও প্যান কার্ডও বানিয়েছিলেন। বর্তমানে তাকে বিচার বিভাগীয় হেফাজতে (জুডিশিয়াল কাস্টডি) রাখা হয়েছে।

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *