মালিঙ্গার পর ১০ বছরের আক্ষেপ কাটালো তাসকিন

আনন্দবার্তা স্পোর্টস ডেস্ক: সফরকারী দলের জন্য দক্ষিণ আফ্রিকা সবসময় কঠিন জায়গায়। সেটা ব্যাটার হোক কিংবা বোলার। তবে দক্ষিণ আফ্রিকায় এবার স্বাগতিকদের ছাপিয়ে দারুণ ক্রিকেট খেলছে বাংলাদেশ।

বিশেষ করে তাসকিন আহমেদ আছেন আগুণে ফর্মে। তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের প্রথমটিতে বল হাতে তিন উইকেট তুলে নিয়ে দলের জয়ে অবদান রেখেছিলেন। এবার সিরিজ নির্ধারণী শেষ ওয়ানডেতে ৮ বছর পর নিজের দ্বিতীয় ফাইফারে দক্ষিণ আফ্রিকাকে গুড়িয়ে দিয়েছেন।

দক্ষিণ আফ্রিকায় দশ বছর পর কোনও সফরকারী পেসার ওয়ানডে ৫ উইকেট শিকারের স্বাদ নিলো। এর আগে ২০১২ সালে লাসিথ মালিঙ্গা দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে পার্লে ৫ উইকেট শিকার করেছিলেন। এরপর তাসকিন আজ সেঞ্চুরিয়ানে ফাইফারের দেখা পেলেন।

মালিঙ্গা সেই ম্যাচে ৫৪ রান দিয়ে ৫ উইকেট নিয়েছিলেন। সেই হিসেবে তাসকিন প্রোটিয়ানদের জন্য বেশি কঠিন ছিলেন। ৮ ওভারে মাত্র ৩০ রান দিয়েই নিয়ে ফেলেছিলেন ৫ উইকেট। শেষ পর্যন্ত ৯ ওভারে ৩৫ রান খরচ করেন তাসকিন।

প্রোটিয়ারা গুড়িয়ে যায় মাত্র ১৫৪ রানে। সেঞ্চুরিয়ানে লক্ষ্য তাড়া করতে খেলছে বাংলাদেশ। এই ম্যাচ জিতলে প্রথমবারের মত দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে সিরিজ জেতার ইতিহাস গড়বে বাংলাদেশ।

এদিকে পাঁচ উইকেট শিকার করে তাসকিন বলেন, ‘আমি আমার প্রক্রিয়া এবং বেসিকসে স্থির থেকেছি। সৌভাগ্যক্রমে এটা আমার পক্ষে কাজ করেছে। আমি কিছু ভ্যারিয়েশনের চেষ্টা করেছিলাম। তবে আমার লাইন এবং লেন্থ ঠিক রেখেছি। আমি গত দুই বছর ধরে আমার প্রক্রিয়া ঠিক রাখার ফলাফল পেলাম আজ।’

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*