মারিওপোলে বড় সাফল্যের দাবি চেচেন যোদ্ধাদের

ইউক্রেনে রাশিয়ার অভিযান শুরু হওয়ার পর থেকেই চেচেনযোদ্ধারা মস্কোর হয়ে লড়ছেন। এরই মধ্যে আজ যুদ্ধের এক মাস পূর্ণ হলো। পশ্চিমারা বলছেন, রুশ সেনারা কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্য অর্জন করতে সক্ষম হয়নি, ঠিক এমন সময় বড় সাফল্যের দাবি করেছেন চেচেনযোদ্ধারা। তবে তাদের দাবি, নিরপেক্ষভাবে যাচাই করা সম্ভব হয়নি। খবর আলজাজিরা।

চেচেন নেতা রমজান কাদিরভ বলেছেন, ইউক্রেনের বন্দরনগরী মারিওপোলের সিটি হলের নিয়ন্ত্রণ নিয়েছেন চেচেনযোদ্ধারা এবং সেখানে তারা রাশিয়ার পতাকা উড়িয়ে দিয়েছে। তবে এই দাবি মানতে নারাজ কিয়েভ। ক্রেমলিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভও বলেছেন, চেনেন নেতার এই দাবির সপক্ষে তার কাছে কোনো তথ্য নেই।

টেলিগ্রাম চ্যানেলে কাদিরভ বলেন, চেচেনযোদ্ধারা রেডিওতে জানিয়েছেন, তারা মারিওপোল কর্তৃপক্ষের ভবনটি মুক্ত করেছেন এবং এর ওপরে পতাকা লাগিয়েছেন (রাশিয়ার পতাকা)।’ তিনি পরে আরেকটি ভিডিওতে বলেন, মস্কোর বাহিনী শহরের পূর্ব অংশের আবাসিক এলাকাগুলোকে শত্রুমুক্ত করেছে।

সেই ভিডিওতে দেখা গেছে, একটি বিধ্বস্ত ভবনের সামনে একদল চেচেন সেনা কাদিরভের ছবি লাগানো পতাকা তুলে ধরছে। রাশিয়ার চেচনিয়া অঞ্চলে একচ্ছত্র আধিপত্য রমজান কাদিরভের। তিনি পুতিনের ঘনিষ্ঠ মিত্র হিসেবে পরিচিত। একসময় চেচেনদের সঙ্গে রুশ সেনাদের যুদ্ধ চললেও এখন রাশিয়ার হয়েই কাদিরভের নেতৃত্বে লড়ছেন তারা। রমজান কাদিরভ এক টেলিভিশন সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন, রাশিয়ার জন্য প্রাণ দিতেও তার আপত্তি নেই।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*