মসজিদে ঢুকে ভাঙচুর, যুবক আটক!

রংপুর নগরীর পাকপাড়া জামে মসজিদের ভেতরে ওজুখানায় ভা’ঙচু’রের ঘ’টনা ঘ’টেছে। এতে জ’ড়িত থাকার অ’ভিযোগে আবির মিয়া নামে এক যুবককে আ’টক করেছে পু’লিশ। বৃহস্পতিবার সকালে পাকপাড়া মসজিদের ভেতরে এ ঘ’টনা ঘটে।

আ’টক আবির মিয়া রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী। তার বাড়ি মসজিদের পাশেই। এ ঘ’টনায় তার বিরু’দ্ধে মা’মলা করেছে মসজিদ কমিটি। তবে আবিরকে মা’দকাস’ক্ত ও মা’নসি’ক ভার’সাম্যহীন বলে দাবি করেছে তার পরবিার।

ঘ’টনার সত্যতা নিশ্চিত করে নগরীর কো’তোয়ালি থা’না পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুর রশিদ জানান, ভাঙ’চুরের ঘ’টনার তথ্য পাওয়া মাত্রই পুলিশ ঘ’টনাস্থলে পৌঁছে স্থানীয়দের সহায়তায় আ’বিরকে আ’টক করে। আবির মিয়া স্থানীয় বাচ্চু মিয়ার ছেলে।

তার বিরু’দ্ধে মসজিদে ভা’ঙচুরের অ’ভিযোগে মা’মলা হয়েছে। স্থা’নীয়রা জানান, বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে আবির মিয়া হঠাৎ মসজিদের ভেতরে ঢুকে ওজু’খানায় ভা’ঙচুর চালাতে থাকেন। এ সময় মসজিদে অবস্থানকারী মোয়াজ্জিন জাহাঙ্গীর আলম তাকে বাধা দেন।

এতে ক্ষু’দ্ধ হয়ে আবির মোয়াজ্জিনকে ধাও’য়া করেন। মোয়াজ্জিনের চিৎকারে আশপাশের লোকজন এসে আবিরকে আট’কানোর চেষ্টা করলে তিনি তাদের সঙ্গে হা’তাহা’তিতে জ’ড়িয়ে পড়েন। পরে থানায় খবর দিলে পুলিশ এসে তাকে আ’টক করে থা’নায় নিয়ে যায়।

মসজিদের ভেতরে ওজু’খানায় ভা’ঙচুর চালানো হয়। এ ব্যাপারে মোয়াজ্জিন জাহাঙ্গীর আলম বলেন, আমি মসজিদের ভেতরে ছিলাম। শব্দ শুনে ওজুখানার কাছে গিয়ে দেখি এসির পাইপ খুলে ফেলাসহ পানির সংযোগ বি’চ্ছিন্ন করছে আবির।

শুধু তাই নয় ওজুখানায় থাকা গ্লাসও তিনি ভেঙে ফেলেন। আমি তাকে বাধা দিতে গেলে সে আমাকে মারার জন্য তেড়ে আসে। তখন আমি ভয়ে বাহিরে বের হয়ে চিৎকার করলে এলাকাবাসী ছুটে আসেন।

মসজিদ কমিটির সদস্য সবুজ বলেন, সকালে আমি এলাকার লোকজন ও মোয়াজ্জিনের ফোন পেয়ে ছু’টে এসে দেখি মসজিদের ভেতরে পানির ট্যাপ সব খুলে ফেলা, এসির মেশিনের পাইপ লাইন ছেঁড়া, মেঝেতে পানি ভর্তি হয়ে গেছে।

আবির আমাদের এলাকার ছেলে। সে রংপুর মেডিকেলে চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী হিসেবে কর্মরত। সে মা’দক সে’বন করে। কয়ে’কদিন আগে সে তার মা’কে মাথায় আ’ঘা’ত করে র’ক্তা’ক্ত করেছে। আজ মসজিদে ঢুকে হা’ম’লা চালিয়েছে।

এদিকে আ’বিরের মা ফরহানা নূর আক্তার জানান, তার ছেলে মা’নসিক রোগী। কিছু দিন বখাটেদের সঙ্গে মিশে মা’দকা’সক্ত হয়ে পড়েছে। তবে তার ছেলে মসজিদ ভা’ঙার মতো এত বড় জ’ঘন্য কাজ করেননি।

দুই মাস ধরে আবির অসুস্থ। কিছু দিন আগে আবিরের হঠাৎ দরজা ধাক্কায় তার মাথা জ’খ’ম হয়েছে। আজ এলাকার কিছু ছেলে বেলা ১১টার দিকে তার বাসার বিভিন্ন স্থানে ভাঙ’চুর করেছে। তাদের অ’ভিযোগ- আবির নাকি মস’জিদে ঢুকে ভা’ঙচুর করেছে।

ওসি আব্দুর রশিদ জানান, মসজিদের ভেতরে ভা’ঙচুরের অভিযোগে আবিরকে আ’টক করা হয়েছে। বিকেলে তার বিরুদ্ধে পাকপাড়া জামে মসজিদ কমিটির সাধারণ সম্পাদক মা’ম’লা করেছেন। প্রাথমিকভাবে জানা গেছে- আবির মা’দকা’সক্ত। তবে সব কিছু তদ’ন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*