মধু বানাতে সুন্দরবনে ১৫ বস্তা চিনি নিয়ে গিয়েছিলেন তারা

সুন্দরবনের ভেতর থেকে ১৫ বস্তা চিনিসহ সাত মৌয়ালকে আটক করেছে বন বিভাগ। বনের ভেতরে বসে এসব চিনি খাঁটি মধুর সঙ্গে মিশিয়ে ভেজাল মধু তৈরি করে লোকালয়ে এসে বিক্রি করত চক্রটি।শুক্রবার (২১ মে) রাতে সুন্দরবনের সাতক্ষীরা রেঞ্জের বাদুড়ঝুলি এলাকার কুমনিওয়ালা খাল থেকে মধু সংগ্রহের সরঞ্জামসহ তাদের আটক করা হয়।

আটকরা হলেন- শ্যামনগরের গাবুরা ইউনিয়নের ৯ নম্বর সোরা গ্রামের সত্তার মোড়ল (৪৫), কুবাত আলী (৫০), শাহাদাত (৫০), সাহেব আলী (৫২), ইয়াসিন গাজী (৪৫), মজিদ গাজী (৫০) ও পদ্মপুকুর ইউনিয়নের গড়কোমরপুর গ্রামের আবু বক্কর (৫২)।

বুড়িগোয়ালিনী ফরেস্ট স্টেশন কর্মকর্তা সুলতান আহমেদ জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ১৫ বস্তা চিনিসহ সাত মৌয়ালকে হাতেনাতে আটক করা হয়েছে।

তিনি আরও জানান, বৃহস্পতিবার সকালে বুড়িগোয়ালিনী ফরেস্ট স্টেশন থেকে মধু আহরণের পাস নিয়ে গাবুরার ৯ নম্বর সোরা এলাকার আব্দুল হাকিম শেখের নেতৃত্বে ১৫ জনের একটি মৌয়াল দল সুন্দরবনে প্রবেশ করে। শুক্রবার রাতে তাদের ১৫ বস্তা চিনি ও মধু সংগ্রহের সরঞ্জামাদিসহ হাতেনাতে আটক করা হয়। তাদের বিরুদ্ধে বন আইনে মামলা দিয়ে জেলহাজতে পাঠানো হবে।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*