মঙ্গলগ্রহের অবাক করা ছবি পাঠাল ঝুরং

মঙ্গলগ্রহ মানুষের বসবাসের জন্য কতটুকু উপযোগী, তা নিয়ে চলমান গবেষণার অংশ হিসেবেই চীনা মহাকাশ গবেষণা সংস্থা গ্রহটিতে পাঠায় তাদের মহাকাশযান ঝুরংকে। ১৫ কোটি মাইল পথ পাড়ি দিয়ে মঙ্গলের লাল মাটিতে ঘুরে বেড়ানো চীনা এ নভোযানটি এবার পাঠিয়েছে আরও কিছু ছবি।

কিছুদিন আগে সেলফি পাঠানোর পর এবার পাঠাল গ্রহটির পাথর আর বালির টিলার ৪টি ছবি। বিবিসি জানায়, লাল গ্রহের প্রাণহীন বিস্তীর্ণ প্রান্তরে একাকী ঘুরে বেড়াচ্ছে ২৪০ কেজি ওজনের ছয়চাকা বিশিষ্ট নভোযান ঝুরং। কিছুদিন পরপর মঙ্গল থেকে ছবি তুলে পাঠাচ্ছে এটি।

গ্রহটির ইউটোপিয়া প্লানিশিয়াতে লাভার তৈরি যে সমতল ভূমি আছে এবার তার আরও কিছু ছবি পাঠিয়েছে চীনের স্বয়ংক্রিয় রোভারটি। চীনের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ন্যাশনাল স্পেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন তাদের ওয়েবসাইটে একটি ছোট অ্যানিমেটেড ভিডিও প্রকাশ করেছে।

ভিডিওটিতে দেখা যায়, নিজেকে বহনকারী প্ল্যাটফর্ম থেকে নেমে আসছে ঝুরং। তারপর নভোযানটিকে ঘুরে বেড়াতে দেখা যায় মঙ্গলের লাল মাটিতে। ৫৪ মঙ্গলীয় দিবস পার করা নভোযানটি অতিক্রম করেছে ইউটোপিয়া প্লানিশিয়ার ৩০০ মিটারের বেশি এলাকা।

পাঠিয়েছে সেলফিসহ অনেক গুরুত্বপূর্ণ ছবি। বিজ্ঞানীরা আশা করছেন, রোভার ঝুরং কমপক্ষে ৯০ মঙ্গলীয় দিবস পর্যন্ত তথ্য ও ছবি পাঠাতে সক্ষম হবে।এত দিন মঙ্গলে অবতরণের গৌরব শুধু যুক্তরাষ্ট্রের থাকলেও কিছুদিন আগেই তাতে ভাগ বসিয়েছে চীন।

গত ১৪ মে প্রথমবারের মতো সফলভাবে মঙ্গলে মহাকাশযান পাঠায় তারা। তিয়ানওয়েন-১ নভোযানে করে পাঠানো হয় তাদের এ রোভার রোবট ঝুরংকে। তার পাঠানো তথ্য থেকে ইউটোপিয়া প্লানিশিয়াতে বহু বছর আগের একটি মহাসাগরের অস্তিত্বের প্রমাণ মিলেছে। সেখানে গ্রহপৃষ্ঠের নিচে গভীরে উল্লেখযোগ্য পরিমাণ পানি ও বরফের খোঁজে চলছে অনুসন্ধান।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*