ভারতের মত বাংলাদেশও ২ দল খেলতে যাবে ২ দেশে

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচের টেস্ট সিরিজ থেকে বর্তমানে ইংল্যান্ডে অবস্থান করছে ভারত। একই সময় সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটের সিরিজ খেলতে শ্রীলঙ্কা সফরে যাবে শিখর ধাওয়ানের নেতৃত্বাধীন ভারতের আরেকটি দল। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রথম রাউন্ড আরব আমিরাত ও ওমানে হবে। সেখানে দুই গ্রুপে ভাগ হয়ে ৮টি দল অংশ নিবে।

দলগুলো হলো— বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কা, আয়ারল্যান্ড, নেদারল্যান্ডস, স্কটল্যান্ড, নামিবিয়া, ওমান ও পাপুয়া নিউগিনি। এই ৮ দলের মধ্য থেকে দুই গ্রুপের সেরা চারটি দল সুপার-১২ এ অংশ নিবে র‌্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষে থাকা ৮ দলের সঙ্গে। তবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বাছাইপর্বে অনেক সহজ প্রতিপক্ষ পেয়েছে টাইগাররা। সেখানে গ্রুপ বি-তে রয়েছে বাংলাদেশ।

বাংলাদেশের সাথে গ্রুপে আরো রয়েছে দেরেলমেন্ট স্কটল্যান্ড এবং নামিবিয়া। এই তিন দলের সাথে এর আগে আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছে বাংলাদেশ। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে নামিবিয়ায় বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে যাত্রা শুরু করবে বাংলাদেশ। প্রথম ম্যাচটি নামিবিয়ার বিপক্ষে হতে পারে ১৮ অক্টোবর। দ্বিতীয় ম্যাচে বাংলাদেশ মুখোমুখি হবে নেদারল্যান্ডের।

ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হতে পারে ২০ অক্টোবর। শেষ ম্যাচটি বাংলাদেশের স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে। এই ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হতে পারে ২২ অক্টোবর। অর্থাৎ একই সঙ্গে মাঠে নামবে ভারতের দুটি দল। এর আগেও একই সঙ্গে দুটি দল খেলানোর নজর গড়েছিল ভারত।যদিও শুরুটা করেছিল ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড (ইসিবি)।

এদিকে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর পাকিস্তান ও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ। সেই সময় ইংল্যান্ড ও ভারতের মতো বাংলাদেশও দুটি দল তৈরি করতে চায় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। গণমাধ্যমের সঙ্গে আলাপকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রথম রাউন্ড আরব আমিরাত ও ওমানে হবে। সেখানে দুই গ্রুপে ভাগ হয়ে ৮টি দল অংশ নিবে। দলগুলো হলো— বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কা, আয়ারল্যান্ড, নেদারল্যান্ডস, স্কটল্যান্ড, নামিবিয়া, ওমান ও পাপুয়া নিউগিনি। এই ৮ দলের মধ্য থেকে দুই গ্রুপের সেরা চারটি দল সুপার-১২ এ অংশ নিবে র‌্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষে থাকা ৮ দলের সঙ্গে।

তবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বাছাইপর্বে অনেক সহজ প্রতিপক্ষ পেয়েছে টাইগাররা। সেখানে গ্রুপ বি-তে রয়েছে বাংলাদেশ। বাংলাদেশের সাথে গ্রুপে আরো রয়েছে দেরেলমেন্ট স্কটল্যান্ড এবং নামিবিয়া। এই তিন দলের সাথে এর আগে আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছে বাংলাদেশ। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে নামিবিয়ায় বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে যাত্রা শুরু করবে বাংলাদেশ।

প্রথম ম্যাচটি নামিবিয়ার বিপক্ষে হতে পারে ১৮ অক্টোবর। দ্বিতীয় ম্যাচে বাংলাদেশ মুখোমুখি হবে নেদারল্যান্ডের। ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হতে পারে ২০ অক্টোবর। শেষ ম্যাচটি বাংলাদেশের স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে। এই ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হতে পারে ২২ অক্টোবর। ১৯৩০ সালে প্রথমবার একই দুটি দল খেলতে নামিয়েছিল ইংল্যান্ড।

সেই বছরের জানুয়ারিতে ফ্রেডি কার্লথর্পের নেতৃত্বে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্ট খেলতে গিয়েছিল ইংলিশরা। আর ১৩ হাজার কিলোমিটার দূরে হ্যারল্ড গ্যালিসনের নেতৃত্বে ইংল্যান্ডের আরেক দল টেস্ট খেলতে গিয়েছিল নিউজিল্যান্ডে। দুটো দলই খেলেছিল স্বীকৃত টেস্ট ম্যাচ এবং সবচেয়ে বড় কথা একই সময়ে।

বিস্ময়কর এই ঘটনা ঘটে ইতিহাসে একবারই। এরপর ১৯৯৮ সালে কমনওয়েলথ গেমসে প্রথমবারের মতো (এখনো পর্যন্ত শেষবার) ক্রিকেট অন্তর্ভুক্ত হয়েছিল।টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রথম রাউন্ড আরব আমিরাত ও ওমানে হবে। সেখানে দুই গ্রুপে ভাগ হয়ে ৮টি দল অংশ নিবে।

দলগুলো হলো— বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কা, আয়ারল্যান্ড, নেদারল্যান্ডস, স্কটল্যান্ড, নামিবিয়া, ওমান ও পাপুয়া নিউগিনি। এই ৮ দলের মধ্য থেকে দুই গ্রুপের সেরা চারটি দল সুপার-১২ এ অংশ নিবে র‌্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষে থাকা ৮ দলের সঙ্গে। তবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বাছাইপর্বে অনেক সহজ প্রতিপক্ষ পেয়েছে টাইগাররা। সেখানে গ্রুপ বি-তে রয়েছে বাংলাদেশ।

বাংলাদেশের সাথে গ্রুপে আরো রয়েছে দেরেলমেন্ট স্কটল্যান্ড এবং নামিবিয়া। এই তিন দলের সাথে এর আগে আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছে বাংলাদেশ।টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে নামিবিয়ায় বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে যাত্রা শুরু করবে বাংলাদেশ। প্রথম ম্যাচটি নামিবিয়ার বিপক্ষে হতে পারে ১৮ অক্টোবর। দ্বিতীয় ম্যাচে বাংলাদেশ মুখোমুখি হবে নেদারল্যান্ডের। ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হতে পারে ২০ অক্টোবর।

শেষ ম্যাচটি বাংলাদেশের স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে। এই ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হতে পারে ২২ অক্টোবর। সে সময় কমনওয়েলথ গেমসে একটি আলাদা দল পাঠিয়েছিল বোর্ড অব কন্ট্রোল ফর ক্রিকেট ইন ইন্ডিয়া (বিসিসিআই)। ঠিক একই সময় কানাডায় সাহারা কাপে পাকিস্তানের বিপক্ষে খেলেছিলেন মোহাম্মদ আজহারউদ্দিন–শচীন টেন্ডুলকাররা।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর প্রায় একই সময়ে বাংলাদেশের দুটি সিরিজ রয়েছে বাংলাদেশের। ঘরের মাঠে পাকিস্তানের সঙ্গে খেলা থাকার পাশাপাশি নিউজিল্যান্ডের সঙ্গেও খেলতে হবে বাংলাদেশকে। দুটি সিরিজ প্রায় একই সময় হওয়ার কারণে ভিন্ন ভিন্ন দল বানাতে হচ্ছে বিসিবিকে। আলাদা দল বানানো ছাড়া কোন উপায় দেখছেন না বিসিবি সভাপতি।

এদিকে পাপন জানিয়েছেন যে, টেস্ট ও টি-টোয়েন্টির স্কোয়াড কখনও আলাদা হতে পারে না। অর্থাৎ টেস্ট ও টি-টোয়েন্টির আলাদা আলাদা দল বানানোর ইঙ্গিত দিয়েছেন তিনি। এ প্রসঙ্গে গণমাধ্যমের সঙ্গে আলাপকালে পাপন বলেন, ‘এখানে প্রথম কথা হচ্ছে রোটেশন চালু করার কথাটা এখন মনে হচ্ছে তা না।

আপনি যদি দেখেন যে কয়টা দলের নাম বললাম আপনাকে আপনি যদি ওই পর্যায়ে যেতে চান তাহলে আলাদা দল লাগবে। টি-টোয়েন্টি স্কোয়াড ও টেস্ট স্কোয়াড এক হতে পারে না। ওয়ানডে স্কোয়াড, ওদের কারও সমস্যা হলে ওদের বিশ্রাম দিতে পারে। আমাদের যেহেতু মেইন স্কোয়াডের মেইন খেলোয়াড়গুলো একই থাকে তিন ফরম্যাটে।

তাদের ওপর অবশ্যই চাপ পড়ে তিনি আরও বলেন, ‘এই মুহূর্তে এটা পরিবর্তন করা কঠিন তবে আমি মনে করি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ শেষে , যেটা অক্টোবরেই শুরু। তারপরে আমরা এইটা করতে পারবো। আমাদের করতে হবে অপশন নাই। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রথম রাউন্ড আরব আমিরাত ও ওমানে হবে। সেখানে দুই গ্রুপে ভাগ হয়ে ৮টি দল অংশ নিবে।

দলগুলো হলো— বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কা, আয়ারল্যান্ড, নেদারল্যান্ডস, স্কটল্যান্ড, নামিবিয়া, ওমান ও পাপুয়া নিউগিনি। এই ৮ দলের মধ্য থেকে দুই গ্রুপের সেরা চারটি দল সুপার-১২ এ অংশ নিবে র‌্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষে থাকা ৮ দলের সঙ্গে।তবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের বাছাইপর্বে অনেক সহজ প্রতিপক্ষ পেয়েছে টাইগাররা।

সেখানে গ্রুপ বি-তে রয়েছে বাংলাদেশ। বাংলাদেশের সাথে গ্রুপে আরো রয়েছে দেরেলমেন্ট স্কটল্যান্ড এবং নামিবিয়া। এই তিন দলের সাথে এর আগে আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছে বাংলাদেশ। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে নামিবিয়ায় বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে যাত্রা শুরু করবে বাংলাদেশ। প্রথম ম্যাচটি নামিবিয়ার বিপক্ষে হতে পারে ১৮ অক্টোবর।

দ্বিতীয় ম্যাচে বাংলাদেশ মুখোমুখি হবে নেদারল্যান্ডের। ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হতে পারে ২০ অক্টোবর। শেষ ম্যাচটি বাংলাদেশের স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে। এই ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হতে পারে ২২ অক্টোবর।যেমন ধরেন পাকিস্তান বিশ্বকাপের পরে এখানে খেলতে আসবে তখন আমাকে দল পাঠাতে হবে নিউজিল্যান্ডে।

তখন কি করব? আমার তো দুইটা দল লাগবেই। কারণ কোয়ারেন্টাইন যদি মানতে হয় তাহলে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইন আছে। এই জিনিসটা বিশ্বকাপের পর থেকে শুরু হবে এবং আমরা চেষ্টা করব আমাদেরও আলাদা আলাদা দল থাকবে।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*