ভরা গ্যালারিতে পাকিস্তান-ইংল্যান্ড

করোনাভাইরাসের কারণে শুরুতে দর্শকশূন্য গ্যালারিতে আয়োজন করা হয়েছিল ইংল্যান্ডের মাঠের সকল খেলা। পরে দেশটির করোনা পরিস্থিতির ক্রমেই উন্নতি ঘটায় মাঠে ফেরানো হয়েছে স্টেডিয়ামের দর্শক। তবে মাঠের পূর্ণ ধারণক্ষমতা ব্যবহার করা হয়নি এখনও।

অবশেষে প্রায় ২ বছর পর নিজেদের ঘরের মাঠে পূর্ণ গ্যালারির সামনে কোনো আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলতে চলেছে ইংলিশরা। পাকিস্তানের বিপক্ষে আসন্ন ওয়ানডে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচটি হবে লর্ডসে। সেখানে দর্শকে পরিপূর্ণ গ্যালারি রাখা অনুমতি দিয়েছে যুক্তরাজ্য সরকার।

গত মাসে সরকারের বিধিনিষেধ মেনে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজের এজবাস্টন টেস্টে প্রথমবারের মতো ধারণক্ষমতার ২০-২৫ শতাংশ দর্শক মাঠে ফিরিয়েছিল ইংল্যান্ড। এবার আগামী ১০ জুলাই (শনিবার) ভরা গ্যালারি নিয়েই পাকিস্তান ক্রিকেট দলকে স্বাগত জানাবে লর্ডস।

যুক্তরাজ্য সরকার আরও আগে থেকেই চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে, আগামী ১৯ জুলাইয়ের মধ্যে করোনাভাইরাসের সকল নিষেধাজ্ঞা উঠিয়ে নিতে। এরই অংশ হিসেবে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে চলতি সিরিজ ও পাকিস্তানের বিপক্ষে আসন্ন সিরিজে পরীক্ষামূলকভাবে মাঠে দর্শক ফেরানো হচ্ছে।

তবে লর্ডসে ধারণক্ষমতার পুরোটাই ব্যবহার করা হলেও, এজবাস্টনে পাকিস্তানের বিপক্ষে তৃতীয় ওয়ানডেতে বিক্রি করা হবে মাঠের ধারণক্ষমতার ৮০ শতাংশ টিকিট।

যাদের বয়স ১১ বছরের বেশি, করোনা টিকার পূর্ণ ডোজ নিয়েছেন এবং গত ছয় মাসের মধ্যে পিসিআর টেস্টে স্বাভাবিক ইমিউনিটির সার্টিফিকেট রয়েছে- তারাই মাঠে বসে খেলা দেখতে পারবেন। গ্যালারিতে সামাজিক দূরত্ব মেনে বসতে হবে না। তবে মাস্ক পরতে উৎসাহিত করা হবে।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*