ব্রাজিলের মাটিতেই পেলের রেকর্ড ভেঙে রাজার সিংহাসনে বসবেন মেসি!

কোপা আমেরিকার স্বপ্নের ফাইনালে এবার মুখোমুখি দাঁড় করিয়ে দিয়েছে ব্রাজিল-আর্জেন্টিনাকে। শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচে শেষ হাসি হাসবে কোন দল? শিরোপাটাই বা উঠবে কার হাতে? মহারণ শেষ হওয়ার আগে বলার সাধ্য নেই কারোরই?

এদিকে শিরোপার হাতছানির পাশাপাশি ঐতিহাসিক একটি রেকর্ডের সামনে দাঁড়িয়ে আর্জেন্টাইন কিংবদন্তি লিওনেল মেসি। ফুটবল সম্রাট এবং যাকে সর্বকালের সেরা ফুটবলার ভাবা হয়, সেই পেলের রেকর্ড ভাঙার সামনে দাঁড়িয়ে রয়েছেন বর্তমান সময়ের সেরা ফুটবলারটি।

কলম্বিয়ার বিপক্ষে সেমিফাইনালে সম্ভাবনা ছিল রেকর্ডটি ভাঙার। কিন্তু সেই ম্যাচে গোল করতে পারেননি মেসি। একটি গোল করিয়েছেন সতীর্থ লাউটারো মার্টিনেজকে দিয়ে। সেই ম্যাচেই তার একটি শট বারে লেগে ফিরে এসেছে। না হয়, হয়তো পেলেকে ছুঁয়ে ফেলতে পারতেন তিনি। ফাইনালে সৃষ্টি করতেন নতুন রেকর্ড।

তবে মেসি এমন এক ফুটবলার, যে কোনো সময় যে কোনো কিছু করে ফেলতে পারেন। পুরো টুর্নামেন্টের মতোই হয়তো ফাইনালটা হয়ে উঠতে পারে পুরো মেসিময়। হয়তো সেদিনই রেকর্ডের জন্য প্রয়োজনীয় গোল দুটি পেয়ে যেতে পারেন তিনি।

কী সেই রেকর্ড? লাতিন আমেরিকার দেশগুলোর মধ্যে আন্তর্জাতিক ফুটবলে এখনও পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি গোলের মালিক পেলে। ৯২ ম্যাচ খেলে ৭৭টি গোল করে শীর্ষে আছেন পেলে। মেসি জাতীয় দলের হয়ে এখনও পর্যন্ত খেলেছেন ১৫০ ম্যাচ। গোল করেছেন ৭৬টি। আর একটি গোল করলে ছুঁয়ে ফেলবেন পেলেকে, দুটি করতে পারলে লাতিন আমেরিকার সবগুলো দেশের মধ্যেই সর্বোচ্চ গোলদাতার রেকর্ডটা নিজের করে নেবেন মেসি।

এদিকে ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা কোপা আমেরিকার ফাইনালটি অনুষ্ঠিত হবে রিও ডি জেনিরোর বিখ্যাত মারাকানা স্টেডিয়ামে। এ স্টেডিয়ামকেই কী তবে পেলের রেকর্ড ভাঙার মঞ্চ হিসেবে বেছে রেখেছেন মেসি? বলা যায় না। ফাইনালে জোড়া গোল করতে পারলে মারাকানাতেই ব্রাজিলিয়ান কিংবদন্তি পেলেকে পেছনে ফেলে দেবেন তিনি।

Sharing is caring!