বৈঠকে বসছে যুক্তরাষ্ট্র ও ইসরায়েল

দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে বসতে যুক্তরাষ্ট্র ও তার মিত্র দেশ ইসরায়েল। রোববার (২৭ জুন) ইতালির রাজধানী রোমে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিনকেন ও ইসরায়েলের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইয়ার লাপিদ এই বৈঠকে মিলিত হবেন। জো বাইডেন ও নাফতালি বেনেট ক্ষমতায় আশার পর এটাই ইসরায়েল-যুক্তরাষ্ট্রের উচ্চপদস্থ নেতাদের প্রথম কোন মুখোমুখি বেঠক।

ইরানকে ২০১৫ সালের পারমাণবিক চুক্তিতে ফিরিয়ে নিতে চাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। ইরানের সাথে চুক্তির বিষয়টিকে কখনও ভালোভাবে দেখেনি ইসরায়েল। ঠিক এমন সময় বৈঠকে বসতে যাচ্ছে লাপিদ ও ব্লিনকেন। দুই দেশের শীর্ষ পর্যায়ের এ বৈঠকে মূল আলোচনায় থাকতে পারে ইসরায়েল-ফিলিস্তিন যুদ্ধ ইস্যু।

গত ২১ মে টানা ১১ দিনের সং’ঘা’তের পর যু’দ্ধবিরতিতে সম্মত হয় ইসরায়েল ও হামাস। ওই সং’ঘা’তে প্রায় আড়াইশোর বেশি ফিলিস্তিনি নি’হ’ত হয়। এর মধ্যে ৬৬ জনই শিশু। অপরদিকে দুই হাজারের বেশি মানুষ আ’হ’ত হয়েছে। দুই পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বৈঠকে আলোচনা হতে পারে মধ্যপ্রাচ্য ইস্যু নিয়ে।

ইরান ও সিরিয়া পরিস্থিতিও থাকতে পারে আলোচনায়। যদিও দুই নেতার আলোচনার বিষয়বস্তু আগে থেকে কিছুই প্রকাশ করেনি ইসরায়েল। এর আগে সম্প্রতি দায়ীত্ব নেয়ার পর নিজের প্রথম সংযুক্ত আরব আমিরাত গিয়েছেন ইসরায়েলের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইয়ার লাপিদ।

আমিরাতের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক হওয়ার পর সেটি ছিল ইসরায়েলের কোনো শীর্ষ কূটনীতিকের দেশটিতে প্রথম সফর। গত ২৯-৩০ জুন আমিরাত সফরে ছিলেন তিনি। এসময় দুবাইতে একটি কনসুলেট এবং আবুধাবিতে একটি দূতাবাসের উদ্বোধন করেছেন লাপিদ।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*