বাংলাদেশের হারে কপাল পুড়ল ভারতের

নারী ওয়ানডে বিশ্বকাপে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে জয়ের খুব কাছাকাছি গিয়েও হেরে গেছে বাংলাদেশের মেয়েরা। ক্যারিবীয়দের ৪ রানের জয়ে জমে উঠল বিশ্বকাপের লিগ টেবিল।ভারতকে টপকে লিগ টেবিলের তৃতীয় স্থানে উঠে এলো ওয়েস্ট ইন্ডিজ। এছাড়া তৃতীয় স্থান থেকে চতুর্থ পজিশনে নেমে গেছে ভারত।

তবে উইন্ডিজদের চেয়ে এক ম্যাচ কম খেলা ভারত যদি আগামী ম্যাচে জিততে পারে তবে আবারও নিজেদের জায়গা পুনরুদ্ধার করতে পারবে। অন্যদিকে, জয়ের কাছাকাছি গিয়েও হেরে যাওয়া বাংলাদেশের মেয়েরা ৪ ম্যাচে এক জয়ে আছে লিগ টেবিলের সপ্তম স্থানে।

তবে উইন্ডিজদের হারাতে পারলে ইংল্যান্ড ও নিউজিল্যান্ডকে টপকে বড় লাফ দেওয়ার সুযোগ থাকতো। চার ম্যাচে চার জয়ে আট পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট তালিকায় শীর্ষে আছে অস্ট্রেলিয়া। একই সংখ্যক ম্যাচ খেলে সমান জয় ও পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছে দক্ষিণ আফ্রিকা।

প্রোটিয়াদের চেয়ে রানরেটে এগিয়ে থাকায় শীর্ষে অবস্থান অজি মেয়েদের। এদিকে, শুক্রবার (১৮ মার্চ) ক্যারিবীয়দের ১৪১ রানের টার্গেটে খেলতে নেমে জয় থেকে ৫ রান দূরে ছিল নিগার সুলতানা জ্যোতি বাহিনী। ৩ বল বাকি থাকতে ১৩৬ রানে গুটিয়ে যায় বাংলাদেশের ইনিংস।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের জয় ৪ রানে। মাউন্ট মঙ্গানুইয়ে ১৪০ রানের জবাবে খেলতে নেমে এক রানেই শামিমা সুলতানার উইকেট হারায় টাইগ্রেসরা। শূন্য রানে ফিরে যান শামিমা। তাকে এলবিডব্লিউর ফাঁদে ফেলেন হেইলি ম্যাথুস। ১৭ রানে ম্যাথুস শিকার করেন শারমিন আক্তারের উইকেটও।

২ উইকেটে নিগার সুলতানা জ্যোতি বাহিনীর সংগ্রহ ছিল ৬০ রান। স্কোর বোর্ডে আর কোনো রান যোগ না হতেই বিদায় নেন ফারজানা হক। এরপর আফি ফ্লেচারের পরপর দুই বলে বিদায় নেন রুমানা আহমেদ ও রিতু মনি। দুজনের কেউই স্কোর বোর্ডে কোনো রান তুলতে পারেননি। ফলে ৫ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে টাইগ্রেস বাহিনী।

৫ উইকেট হারিয়ে ফেলার পর বাংলাদেশের বড় ভরসা নিগার সুলতানা জ্যোতি আউট হন ব্যক্তিগত ২৫ রানে। তিনি দলের হয়ে সবচেয়ে বেশি ৭৭টি বল ফেস করেছিলেন। স্কোর বোর্ডে তখন লাল সবুজের প্রতিনিধিদের রান ৬৫। জ্যোতিকে শিকার করেন ম্যাথুস। একই ওভারে ফাহিমাও সরাসরি বোল্ড আউট হন।

৭ উইকেট চলে যাওয়ার পর নাহিদা আক্তারকে নিয়ে ২৫ রানের গুরুত্বপূর্ণ জুটি গড়েন সালমা খাতুন। তিনি ৪০ বলে ২৩ রান করে আউট হন স্টেফানি টেইলরের বলে। জাহানারা আলম ১০ বলে ৮ রান করে ক্যাচ তুলে দিয়ে ফেরেন। শেষ দিকে নাহিদা আক্তার ২৫ রানের লড়াকু ইনিংস খেললেও জয় পায়নি দল।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*