ফাইনালে হেরে যা বললেন ইংল্যান্ডের অধিনায়ক হ্যারি কেন

ইটস কামিং হোম’ স্বপ্নই হয়ে রইল। ‘ইটস গোয়িং রোম’ বাস্তবে রূপ নিল। প্রথমবারের মতো ইউরো ফাইনালে উঠে সফল হলেন না হ্যারি কেনরা।তাদের সামনে দিয়েই কাপ নিয়ে বাড়ি ফিরলেন আজ্জুরিরা, যা ‘হোম অব ফুটবল’-এ রবিবাসরীয় রজনী বিষণ্নতায় ডোবাল ৬৫ হাজার ইংল্যান্ডভক্তকে।

লন্ডনের ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামে রোববার রাত ১টায় লাখো দর্শকের সামনে ইউরোর ফাইনালে মুখোমুখি হয় ইংল্যান্ড ও ইতালি।টাইব্রেকারে ৩-২ ব্যবধানে জিতে ৫৩ বছর পর ইউরোকাপের শিরোপা ঘরে নিয়ে গেল ইতালি।স্বপ্ন পূরণের খুব কাছাকাছি গিয়েও এমন ব্যর্থতা মেনে নিতে কষ্ট হচ্ছে ইংল্যান্ড দলের অধিনায়ক হ্যারি কেনের।

বিবর্ণ মুখে মাঠ ছাড়ার আগে ইংলিশ অধিনায়ক আক্ষেপ ভরা কণ্ঠে বললেন, ‘আমি এর থেকে বেশি কিছু করতে পারতাম না।’কেন এমন কথা বলতেই পারেন। গোটা টুর্নামেন্টজুড়ে উজ্জ্বল ছিলেন তিনি। গোল পেয়েছেন চারটি। ফাইনালে টাইব্রেকারে নিজের কাজটাও সেরেছিলেন বল জালে জড়িয়ে।সত্যি এর চেয়ে বেশি আর কি করতে পারেন তিনি।

হ্যারি কেন বলেন, ‘এটি আমাদের রাত ছিল না। আমরা দারুণ একটি টুর্নামেন্ট কাটালাম। আমরা আমাদের মাথা উঁচু করেই মাঠ ছাড়ছি, কিন্তু হারটা অনেক কষ্ট দিচ্ছে। অনেক দিন ধরেই কষ্ট দেবে। আশা করি আমরা সামনের বছর আরও শক্তিশালী হয়ে মাঠে ফিরব। পেনাল্টি তো পেনাল্টিই। দলের সবার এর থেকে বেশি আর কিছুই দেওয়ার ছিল না।’

প্রসঙ্গত ফাইনালে নির্ধারিত ৯০ মিনিটের খেলা ১-১ গোলে অমীমাংসিত থাকার পর অতিরিক্ত ৩০ মিনিটেও নিষ্ফলা থাকে ম্যাচ। শেষ পর্যন্ত ইউরো ২০২০-এর শিরোপা নির্ধারণের জন্য টাইব্রেকারের আশ্রয় নিতে হয়। টাইব্রেকারে ইতালি জয়ী হয় ৩-২ গোলে।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*