প্রথমার্ধে আর্জেন্টিনা কে এগিয়ে দিলেন ডি মারিয়া

কোপা আমেরিকার ফাইনালে ডি মারিয়ার দুর্দান্ত গোলে প্রথমার্ধে এগিয়ে থাকল আর্জেন্টিনা। খেলার ২২ মিনিটে ডি পলের কাছ থেকে বল পেয়ে দুর্দান্ত এক চিপ শটে ব্রাজিল গোলরক্ষক এডারসনকে পরাস্ত করে নিজ দলকে এগিয়ে দেন অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া। ২০০৪ সালে সিজার ডিলগাডোর পর ডি মারিয়া প্রথম আর্জেন্টাইন খেলোয়াড় হিসেবে কোপা আমেরিকার ফাইনালে গোল করলেন।

খেলায় দু’দলই প্রায় সব তালে লড়াই করে। তবে গোলপোস্টে হানা দেয়ার ক্ষেত্রে আর্জেন্টিনাই এগিয়ে ছিল। তারা প্রথমার্ধে ২-০-এ এগিয়ে যেতে পারত। ৩২ মিনিটে মেসির শট লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়।অন্য দিকে ২৫ গজের বিপজ্জনক জায়গা থেকে ফ্রি-কিক পেলেও তা কাজে লাগাতে পারেনি ব্রাজিল। ৩৪ মিনিটে নেইমারের ফ্রি-কিক দেয়ালে প্রতিহত হয়।

এর আগে ব্রাজিলের ঐতিহাসিক মারকানা স্টেডিয়ামে কোপা আমেরিকায় ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনার মধ্যকার স্বপ্নের ফাইনাল শুরু হয়। দু’দেশের জাতীয় সঙ্গীতের পর রেফারির বাঁশিতে শুরু হয় কোপা আমেরিকার ফাইনাল।

আর্জেন্টিনা দলে পরিবর্তন, সেমির দল নিয়েই নামে ব্রাজিলকোপা আমেরিকার ফাইনাল শুরু হয়েছে। এই মহাযুদ্ধে অংশ নিচ্ছে ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা। এই ম্যাচের জন্য আর্জেন্টনা দলে বেশ কয়েকটি পরিবর্তন এসেছে। তবে ব্রাজিল তাদের সেমিফাইনালের দল নিয়েই শুরু করে।

আর্জেন্টিনার প্রথম একাদশ
এমিলিয়ানো মার্টিনেজ, ডি’পল, মেসি, ওতামেন্দি, লো সেলসো, মার্টিনেজ এল, আকুনা, রোমেরো, মন্তিয়েল, পারেদেস ও ডি মারিয়া।

ব্রাজিলের প্রথম একাদশএডারসন, দানিলো, থিয়াগো সিলভা, মারকিনহোস, ক্যাসোমিরো, রিচার্লিসন, ফ্রেড, নেইমার, রেনান লোদি, লুকাস পাকুয়েতা ও এভার্টন।

প্রথম একাদশে পরিবর্তনব্রাজিল সেমিফাইনালের অপরিবর্তিত প্রথম একাদশে ফাইনালেও মাঠে নামার সিদ্ধান্ত নেয়। এমনকি তাদের বদলি ফুটবলারের তালিকাও অপরিবর্তিত থাকে। তবে আর্জেন্টিনা প্রথম একাদশে একসাথে পাঁচটি পরিবর্তন করে। রিজার্ভ বেঞ্চে পাঠানো হয় জেল্লা, গঞ্জালেজ, মলিনা, ট্যাগলিয়াফিকো ও রডরিগেজকে। প্রথম একাদশে ঢুকেছেন আকুনা, রোমেরো, মন্তিয়েল, পারেদেস ও ডি মারিয়া।

আর্জেন্টিনার বদলি ফুটবলার আর্মানি, ট্যাগলিয়াফিকো, পেজেল্লা, মার্চেসিন, অগুয়েরো, পালাসিয়স, গঞ্জালেজ, রডরিগেজ, কোরেয়া, গোমেজ, লিসান্দ্রো মার্টিনেজ, মলিনা।

ব্রাজিলের বদলি ফুটবলার অ্যালিসন, অ্যালেক্স সান্দ্রো, রিবেইরো, উইভার্টন, এমার্সন, মিলিতাও, ফ্যাবিনহো, ভিনিসিয়াস জুনিয়র, রবার্তো ফির্মিনো, বারবোসা, অর্টিজ, ডগলাস লুইজ।

Sharing is caring!