পুলিশের বউকে ইউপি মেম্বারের মারধর

ঠাকুরগাঁওয়ে স্থানীয় ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে পুলিশের স্ত্রীকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে। ঘটনার পরপর ওই নারীকে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। মঙ্গলবার (২৯ মার্চ) দুপুরে ঠাকুরগাঁও সদর থানায় ঘটনাটিকে কেন্দ্র করে একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন ভুক্তভোগীর পরিবার।

ভুক্তভোগী ও এলাকাবাসী সূত্রে জানাগেছে, সদর উপজেলাধীন আকচা ৩ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য বালু মেম্বারের সঙ্গে জমি নিয়ে বিরোধে জড়িয়ে পরে স্থানীয় ব্যবসায়ী নজরুল ইসলাম। এ নিয়ে সোমবার (২৮ মার্চ) বিকেলে দুই পক্ষের মধ্যে বিবাদ শুরু হয়। এক পর্যায়ে ব্যবসায়ী নজরুলকে মারপিট শুরু করে মেম্বার বালু।

বিবাদের সময় ব্যবসায়ীর মেয়ে (২৪) তার পুলিশ সদস্য স্বামীকে ফোন দিয়ে ঘটনার বিবরণ দেয়। বিষয়টি চোখে পরলে পুলিশের স্ত্রীকে বেধড়ক মারধর শুরু করে মেম্বার বালু। এসময় তার (পুলিশের স্ত্রী) ছোটো বোন থামাতে গেলে তাকেও মারধর শুরু করে সেই মেম্বার। পরে দুইবোনকে উদ্ধার করে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করে স্থানীয়রা।

অভিযুক্ত ইউপি সদস্য শ্রী সন্তোষ রায় বালু বলেন, নজরুল আমার জমিতে সীমানা লাগিয়েছে। তার প্রতিবাদ করতে গিয়েছিলাম। মহিলারাই অযথা এসেছে এখানে আমি তাদের মারিনি। ব্যবসায়ী নজরুল ইসলাম জানান, বালু মেম্বার ও তার লোকজন আমার জমি দখল করতে এসেছিলো। আমি বাধা দেয়ায় আমাকে মারধর করেছে।

কিন্তু আমার মেয়েরা কোনো বাধা দেয়নি। সেখানে শুধু উপস্থিত ছিলো। আমার জামাইকে ফোন দেওয়ায় আমার মেয়েদের তারা মেরেছে। আমি এর বিচার চাই। আকচা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সুব্রত কুমার বর্মণ জানান, এর আগে দুই পক্ষকে একসাথে বসিয়ে মীমাংসা করে দিয়েছিলাম।

দুই পক্ষ মেনে নিয়েছিলো। তবে পরবর্তীতে কেনো বিবাদের সৃষ্টি হলো তা জানা নেই। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ঠাকুরগাঁও সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তানভীরুল ইসলাম জানান, ৯৯৯ এ ফোন পেয়ে তখনি আমরা ঘটনাস্থলে গিয়েছিলাম। তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*