পুতিনের ধমকে রুশ প্রতিরক্ষামন্ত্রীর হার্ট অ্যাটাক!

রাশিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত হয়েছেন বলে দাবি করেছেন ইউক্রেনের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর উপদেষ্টা আন্তন গেরাশচেঙ্কো। গত ১১ মার্চ থেকে ২৩ মার্চ পর্যন্ত প্রকাশ্যে ছিলেন না রাশিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী সের্গেই শোইগু। তবে ২৪ মার্চ রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের প্রকাশিত একটি ভিডিওতে খুব অল্প সময়ের জন্য দেখা যায় তাকে।

সের্গেই শোইগু বর্তমানে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন দাবি করে ইউক্রেনের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর উপদেষ্টা ফেসবুকে লিখেছেন, ইউক্রেনে সামরিক অভিযানে সম্পূর্ণ ব্যর্থতার জন্য ধমকের সুরে পুতিনের ‘কঠোর অভিযোগের’ পর শোইগুর হার্ট অ্যাটাক হয়েছিল। তবে রাশিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী সের্গেই শোইগুর কথিত স্বাস্থ্য সমস্যার বিষয়টি নিশ্চিত করে রাশিয়ার পক্ষ থেকে কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

এর আগে, প্রায় দুই সপ্তাহ প্রকাশ্যে উপস্থিতি না থাকার কারণে রুশ প্রতিরক্ষামন্ত্রী কোথায় আছেন, তা নিয়ে রহস্যের সৃষ্টি হয়। এদিকে শুক্রবার (২৫ মার্চ) রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় ঘোষণা দিয়েছে, ইউক্রেনে রাশিয়ার সামরিক অভিযানের প্রথম ধাপ শেষ হয়ে গেছে। এখন পূর্ব ইউক্রেনের দোনবাস অঞ্চলকে পুরোপুরি স্বাধীন করতেই বেশি জোর দেওয়া হবে।

ইউক্রেনের লুহানস্ক অঞ্চলের ৯৩ শতাংশ ও ডোনেৎসকের ৫৪ শতাংশ নিয়ন্ত্রণ করছে বিদ্রোহীরা। এই দুই অঞ্চল মিলেই দোনবাস গঠিত। মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন বলছে, যুদ্ধের প্রথম মাসে ইউক্রেনের কাছ থেকে ব্যাপক প্রতিরোধের মুখোমুখি হওয়ার পর রাশিয়া তাদের সামরিক অভিযানের পরিধি আরও সীমিত করে আনছে বলে আভাস পাওয়া গেছে।

অন্যদিকে রাশিয়ার জেনারেল স্টাফের মূল আভিযানিক পরিদফতরের প্রধান সের্গেই রুডোস্কোই বলেন, অভিযানের প্রাথমিক ধাপ অনেকটা শেষ হয়েছে। ইউক্রেনের সামরিক বাহিনীর যুদ্ধের সম্ভাব্যতা উল্লেখযোগ্য হারে কমে গেছে। এখন দোনবাসকে মুক্ত করার লক্ষ্য নিয়েই আমাদের এগিয়ে যেতে হবে। তার দাবি, ইউক্রেনের বিমান ও নৌবাহিনীর বড় অংশ ধ্বংস করে দেওয়া হয়েছে।

এতে অভিযানের প্রথম ধাপ সফল হয়েছে বলা যায়। তবে অবরুদ্ধ শহরগুলোতে রুশ সামরিক বাহিনীর ঢুকে পড়ার সম্ভাবনা নাকচ করা হয়নি। রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেছে, ইউক্রেনের আকাশপথ বন্ধে করে দেওয়ার যে কোনো উদ্যোগের তাৎক্ষণিক জবাব দেওয়া হবে। সূত্র: সময় নিউজ

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*