পাপুয়া নিউগিনিকে কঠিন টার্গেট দিল স্কটল্যান্ড

নিজেদের প্রথম ম্যাচেই বাংলাদেশকে হারানো স্কটল্যান্ডের সামনে এবার পাপুয়া নিউগিনি। পুরো দুই পয়েন্ট অর্জন করে এগিয়ে থাকা দলটি আজ (মঙ্গলবার) জিতলেই তাদের বেড়ে যাবে সুপার টুয়েলভে যাওয়ার সম্ভাবনা। এমন সমীকরণ সামনে রেখে টসভাগ্যে জিতে আগে ব্যাটিং করে ৯ উইকেটে ১৬৫ রানের চ্যালেঞ্জিং স্কোর গড়েছে স্কটল্যান্ড।

যদিও পাপুয়া নিউগিনির বোলার কাবুয়া মোরেয়া ও চাঁদ সোপারের বোলিং তোপে মাত্র ২৬ রানেই দুই উইকেট হারিয়ে অনেকটাই চাপে পড়ে বাংলাদেশকে হারিয়ে উড়তে থাকা দলটি। তবে ম্যাথিউ ক্রস ও রিচি বেরিংটনের অনবদ্য ব্যাটিংয়ের সুবাদে প্রায় পৌনে দুইশ রানের স্কোর গড়েছে স্কটল্যান্ড।

দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৭০ রানের ইনিংস খেলেন দলটির স্বীকৃত সেরা ব্যাটার বেরিংটন। তাঁর ৪৯ বলের এই ইনিংসে ছিল ছয়টি চারের সঙ্গে তিনটি বিশাল ছক্কার মার। আর ৩৬ বলে সমান দুটি করে চার ও ছক্কায় দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৪৫ রানের ইনিংস খেলেন উইকেটরক্ষক ব্যাটার ম্যাথিউ ক্রস।

এছাড়া পাপুয়া নিউগিনির বোলারদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ের মুখে ডাবল ফিগার পেয়েছেন আর মাত্র দুজন। জর্জ মুনসে ১৫ রানে এবং ক্যালাম ম্যাকলেওড ১০ রান করতে সামর্থ হন। যাতে শেষ পর্যন্ত ৯ উইকেট হারিয়ে ১৬৫ রান জড়ো করে স্কটল্যান্ড।

পিএনজি বোলারদের মধ্যে ৩১ রান দিলেও একাই চারটি উইকেট দখল করেন ২৮ বছর বয়সী বাঁহাতি পেসার কাবুয়া মোরেয়া। আর ২৪ রান দিয়ে ৩টি উইকেট শিকার করেন ৩০ বছর বয়সী মিডিয়াম পেসার চাঁদ সোপার।

এর আগে বাংলাদেশের বিপক্ষে জয়ের পর পাপুয়া নিউগিনিকে মোকাবেলা করতে নামার আগে দলটির অধিনায়ক কাইল কোয়েৎজার বলেন, “সব কিছু অর্জন এবং কিছু স্মৃতি তৈরি করার জন্য এটাই যথেষ্ট সময়। আমরা জাতি হিসেবে মহান কিছু অর্জন করতে সক্ষম।”

অন্যদিকে, ওমানের সঙ্গে হতাশাজনক পারফর্ম করা নিয়ে পিএনজির অধিনায়ক আসাদ ভালা বলেন, “দুই উইকেট হারানোর পর আমরা যেভাবে লড়াই করেছি তা ইতিবাচক। আমরা আমাদের বিপর্জয়ে হতাশ হয়েছি, আমরা আমাদের ওভারগুলো ভালভাবে শেষ করতে পারিনি।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*