পাকিস্তানের ক্রিকেটকে হত্যা করেছে নিউজিল্যান্ড

পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডে শুরুর আগ মুহূর্তে সিরিজ স্থগিত করেছে নিউজিল্যান্ড। নিরাপত্তাজনিত কারণে কোনো ম্যাচ না খেলে ক্রিকেটারদের দেশে ফিরিয়ে নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট (এনজেডসি)। কিউইদের এমন সিদ্ধান্তে চটেছেন সাবেক পাকিস্তানি পেসার শোয়েব আখতার।

তিনি মনে করেন নিউজিল্যান্ড এমন সিদ্ধান্ত নিয়ে পাকিস্তান ক্রিকেটকে হ’ত্যা করেছে। সফরে কোয়ারেন্টাইন থেকে মাঠের অনুশীলন, কিউইদের সবই চলছিল ঠিকমতো। ১৭ সেপ্টেম্বর রাওয়ালপিন্ডিতে প্রথম ওয়ানডে ম্যাচ দিয়ে মাঠে গড়ানোর কথা ছিল এই দ্বিপাক্ষিক সিরিজ।

কিন্তু রাউয়াল পিন্ডিতে টসের ঠিক আগ মুহূর্তে পরিচয় গোপন করে ই-মেইল বার্তায় এই সিরিজ নিয়ে হুমকি দেওয়া হয় এনজেডসিকে।এমন ঘটনার পরপরই নিরাপত্তাজনিত কারণ দেখিয়ে সিরিজ স্থগিত করেছে ব্ল্যাক ক্যাপসরা। পাকিস্তনের মাটিতে এর আগে হামলার শিকার হয়েছিল শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দল।

এর পর প্রায় এক যুগ দেশটিতে সফর করেনি কোনো জাতীয় ক্রিকেট দল।এবার কিউইদের সঙ্গে এমন ঘটনার পর দেশটির ক্রিকেট আবারও শঙ্কায় পড়তে পারে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এমন আশঙ্কার কথা জানিয়েছেন পাকিস্তানের সাবেক পেসার শোয়েব। তিনি টুইটারে লিখেছেন, ‘পাকিস্তান ক্রিকেটকে হ’ত্যা করেছে নিউজিল্যান্ড।

কিউইদের এমন সিদ্ধান্তে শহীদ আফ্রিদিও নিজের প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। তিনি টুইটারে লিখেছেন, ‘সবধরনের আশ্বাস সত্ত্বেও একটি ভিত্তিহীন হুমকিতে আপনারা সিরিজ স্থগিত করেছেন। আপনাদের এই সিদ্ধান্ত কতটা প্রভাব বিস্তার করবে বুঝতে পারছেন?’

এদিকে সিরিজ স্থগিত করে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড এক বিবৃতিতে বলেছে, ‘পাকিস্তানের বিপক্ষে আজ রাওয়ালপিন্ডিতে তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম ওয়ানডে খেলতে নামার কথা ছিল দলের। সেখান থেকে পাঁচ ম্যাচের সিরিজ ছিল লাহোরে। কিন্তু পাকিস্তানে হুমকির মাত্রা বেড়ে যাওয়ার বিষয়টি নিউজিল্যান্ড সরকার জানানোর পর এবং মাঠে থাকা নিউজিল্যান্ড ক্রিকেটের নিরাপত্তা উপদেষ্টাদের পরামর্শক্রমে সিদ্ধান্ত হয়েছে, ব্ল্যাকক্যাপসরা এই সফরে আর খেলবে না। দলকে ফেরত নেয়ার বন্দোবস্ত করা হচ্ছে।’

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*