পরকীয়া করে মাকে বিয়ে, ভাড়াটে দিয়ে চাচাকে খু’ন

চট্টগ্রামে মায়ের সঙ্গে পরকীয়া করে বিয়ে করায় ক্ষুব্ধ ছেলে দুঃসম্পর্কের চাচাকে ৬০ হাজার টাকার বিনিময়ে ভাড়াটে খুনি দিয়ে হ’ত্যার ঘ’টনা ঘ’টেছে। এ ঘ’টনায় আশিক মিয়া (২১) ও সুমন মিয়া (২৪)। নামে দুই যুবককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আসামিদের গ্রে’প্তারের পর পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) এ তথ্য জানিয়েছে।

পিবিআই চট্টগ্রাম জেলার পুলিশ সুপার নাজমুল হাসান জানান, গত ১৭ অক্টোবর চট্টগ্রামের পটিয়া উপজেলার কুসুমপুরা ইউনিয়নের হরিখাইন এলাকায় চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের পাশ থেকে নবী হোসেন নামে এক ব্যক্তির লা’শ উদ্ধার করে পটিয়া থানা পুলিশ।

যার বাড়ি ভৈরবের আগানগর ইউনিয়নের পুরানচর এলাকায়। লাশটি উদ্ধারের পর আঙুলের ছাপ মিলিয়ে পরিচয় শনাক্ত করে পিবিআই। পরে নবী হোসেনের ভাই লা’শ শনাক্ত করেন এবং পটিয়া থানায় পাঁচজনকে আসামি করে মা’মলা করেন।

পিবিআই স্ব-প্রণোদিত হয়ে মা’মলার তদন্তভার নিয়ে নরসিংদী থেকে আশিক ও কিশোরগঞ্জ থেকে সুমনকে গ্রে’প্তার করে। পাশাপাশি হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত প্রাইভেটকার উদ্ধার করা হয়।এসপি নাজমুল বলেন, এই হ’ত্যাকাণ্ডের হোতা সাব্বির নামে এক যুবক।

তিনি সম্পর্কে নি’হ’ত নবী হোসেনের ভাতিজা। তার বাড়িও ভৈরবে। ৬০ হাজার টাকার বিনিময়ে সব্বির ভাড়াটে খু’নি দিয়ে নবী হোসেনকে খু’ন করায়। হ’ত্যাকাণ্ডের কারণ সম্পর্কে তিনি বলেন, সাব্বিরের বাবা প্রবাসী। সে সুযোগে নবী হোসেন তার মায়ের সাথে পরকীয়া জড়িয়ে পড়ে।

পরবর্তীতে তারা পা’লিয়ে বিয়ে করে। সাব্বির বিষয়টি মেনে নিতে না পেরে নবী হোসেনকে খুনের পরিকল্পনা করে। সেজন্য তূষার নামে একজনের সাথে ৬০ হাজার চুক্তি করে সাব্বির।পরিকল্পনা অনুযায়ী তাকে মুখে গামছা বেঁধে ও পায়ের রগ কেটে হ’ত্যা করে তারা।

হ’ত্যার পর লাশটি পটিয়ায় মহাসড়কের পাশে ফেলে দিয়ে কক্সবাজার ভ্রমণ করে ভৈরবে ফিরে যায় হ’ত্যাকারীরা। এই ঘ’টনায় সাব্বির, তূষারসহ পলাতক অন্য জড়িতের ধরতে অভিযান অব্যাহত আছে বল জানান এসপি নাজমুল।

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *