‘নির্বাচনে মারামারি করে মারা গেলে পাবে ১০ লাখ’

মুন্সীগঞ্জ জেলার সিরাজদিখান উপজেলার বাসাই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম যুবরাজের এক ভিডিও বক্তব্য ভাইরাল হয়েছে। নির্বাচনী কর্মী সভায় তাকে বলতে শোনা গেছে, ‘আমার নির্বাচনে মা’রামা’রি করে যদি কেউ মা’রা যায় তাহলে আমি ১০ লাখ টাকা দেবো।

আর যদি কেউ মা’রামা’রি করে হাসপাতালে ভর্তি থাকে তাহলে আমি তার সম্পূর্ণ খরচ বহন করবো। এমনকি তার সংসারের খরচও আমি চালাবো।’ ভাইরাল হওয়া বক্তব্যের বিষয়ে আওয়ামী লীগ নেতা যুবরাজ জানান, ১৯৮৬ সালে এই ইউনিয়নের ইউপি নির্বাচনে ৩ জন লোক গুলিবিদ্ধ হয়ে মা’রা গিয়েছিল।

পরবর্তীতে নি’হ’তের পরিবার কিছুই পায়নি। নিরাপত্তার বিষয়ে আমাকে প্রশ্ন করার প্রেক্ষিতে আমি তাদের উদ্দেশ্যে বলি আমার নির্বাচনে মা’রামা’রি করে যদি কেউ মা’রা যায় তাহলে আমি তার পরিবারকে ১০ লাখ টাকা দেবো। আর যদি কেউ মা’রামা’রি করে হাসপাতালে ভর্তি থাকে তাহলে আমি তার সম্পূর্ণ খরচ বহন করবো। এমনকি তার সংসারের খরচও আমি চালাবো।

যুবরাজের ভাইরাল হওয়ার বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় সিরাজদিখান উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সৈয়দ ফয়েজুল ইসলাম জানান, এ ধরণের বক্তব্য সমীচীন নয়। উল্লেখ্য, আগামী ২৩ ডিসেম্বর সিরাজদিখান উপজেলার ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচন হতে যাচ্ছে। চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম যুবরাজ এবারও দলীয় প্রতীক নৌকা প্রত্যাশী।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*