নিজের কাঁধেই দায় নিলেন মেসি

রানার্স আপের তকমা নিয়ে ২০১৮ সালের রাশিয়া বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ করে আর্জেন্টিনা। কিন্তু লা আলবিসেলেস্তেদের দৌঁড় থেমে যায় দ্বিতীয় পর্বেই। দলের এমন ব্যর্থতার জন্য নিজেকেই দায়ী করছেন দুইবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের অধিনায়ক এবং সেরা খেলোয়াড় লিওনেল মেসি।

গ্রুপ ‘সি’তে আর্জেন্টিনার প্রথম প্রতিপক্ষ ছিল আইসল্যান্ড। ইউরোপের দলটির সাথে ১-১ গোলে ড্র করে আসর শুরু করে জায়ান্টরা। সার্জিও আগুয়েরোর কল্যাণে আর্জেন্টিনার এগিয়ে যাওয়ার পর আইসল্যান্ডকে ম্যাচে ফেরান আলফি ফিনবগাসন।

অবশ্য সে ম্যাচে পূর্ণ তিন পয়েন্ট পাওয়ার সুবর্ণ সুযোগ ছিল আর্জেন্টিনার সামনে। ৬৩ মিনিটে পেনাল্টি পায় আকাশী-সাদা জার্সিধারীরা। মেসির নেওয়া স্পট কিক ঠেকিয়ে দেন আইসল্যান্ডের গোলরক্ষক হ্যানেল হ্যালডরসন। দ্বিতীয় ম্যাচে ক্রোয়েশিয়ার কাছে হেরে যায় আর্জেন্টিনা। শেষ ম্যাচে নাইজেরিয়াকে হারিয়ে গ্রুপ রানার্সআপ হয়ে দ্বিতীয় পর্বে পা রাখে মেসির দল।

দ্বিতীয় পর্বে ফ্রান্সের কাছে ৪-৩ গোলে হেরে আসর থেকে বিদায় নেয় আর্জেন্টিনা। সে বিষয়টি এখনও পোড়ায় পিএসজি ফরোয়ার্ডকে। এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ‘আইসল্যান্ডের বিপক্ষে আমি যদি পেনাল্টি মিস না করতাম তাহলে পরিস্থিতি ভিন্ন হতে পারত। কারণ বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে সব সময়ই উৎকণ্ঠা এবং স্নায়ুচাপ থাকে। পেনাল্টি থেকে আমি গোলটা করতে পারলে দল জয় পেতো। সেক্ষেত্রে পরিস্থিতি সম্পূর্ণ বদলে যেতো।’

Sharing is caring!