নারায়ণগঞ্জে পুলিশের সংঘ’র্ষে রণক্ষেত্র!

গতকাল সন্ধ্যায় নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলায় সজীব গ্রুপের অঙ্গ প্রতিষ্ঠান সেজান জুস কা’রখানায় ভ’য়া’বহ অ’গ্নিকা’ণ্ডের ঘ’টনায় সাড়ে ১৬ ঘণ্টা অ’তিবা’হিত হলেও আ’গুন নি’য়ন্ত্রণে আসেনি। এতে তিনজন নি’হ’ত হওয়ার খবর নিশ্চিত হওয়া গেলেও এ সংখ্যা আরো বাড়বে বলে জানিয়েছেন ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তারা। দুর্ঘ’টনা’য় আ’হ’ত হয়েছেন অন্তত ৫০ জন।

এদিকে নিখোঁজ শ্রমিকদের খোঁজ করতে এসে ভিড় করা স্বজনদের সরাতে পুলিশ ধা’ওয়া দিলে সং’ঘ’র্ষ বেধে যায়। দুপক্ষের সং’ঘ’র্ষ ধা’ওয়া পা’ল্টা ধা’ওয়া হয়। ইতোমধ্যে পু’লিশ কাঁ’দানে গ্যা’স ও রা’বা’র বু’লে’ট নি’ক্ষেপ করেছে, এদিকে স্বজনরাও ইট পা’টকেল ছু’ড়ে মে’রেছেন।

আজ শুক্রবার (৯ জুলাই) সকাল সাড়ে ১০টায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত আ’গু’ন নিয়ন্ত্রণে আ’সেনি। সাড়ে ১০টায় শুরু হয় সং’ঘ’র্ষ। এদিকে পুলিশের দাবি, একটি চক্র লু’টপা’ট চালাতে স্বজনদের বেশে এখানে হা’ম’লা করে। এর আগে গত বৃহস্পতিবার (৮ জুলাই) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার উপজেলার কর্ণগোপ এলাকায় অবস্থিত ওই কা’রখানায় অ’গ্নি’কা’ণ্ডের ঘ’টনা ঘ’টে। এতে ডেমরা, কাঞ্চনসহ ফায়ার সার্ভিসের ১৮টি ইউনিট আগুন নেভানোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

এ ব্যাপারে ফায়ার সা’র্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের নারায়ণগঞ্জ জেলার উপ-পরিচালক আব্দুল্লাহ আল আরেফীন জানান, আমরা আ’গুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করছি। ভিড় সামাল দিতে গেলে পুলিশের সঙ্গে নিখোঁ’জদের স্বজনদের ধা’ওয়া পা’ল্টা ধাওয়া হয়। এদিকে শ্রমিকরা জানান, চতুর্থ তলার শ্রমিকদের ইনচার্জ মাহবুব, সুফিয়া, তাকিয়া, আমেনা, রাহিমা, রিপন, কম্পা রানী, নাজমুল, মাহমুদ, ওমরিতা, তাছলিমাসহ প্রায় ৭০-৮০ জন শ্রমিক নি’খোঁজ রয়েছেন।

Sharing is caring!