নাটকীয় জয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ

এএইচএফ কাপ হকিতে টানা চার ম্যাচ জিতে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়েই সেমিফাইনালে খেলবে বাংলাদেশ। আগেই সেমিফাইনাল নিশ্চিত করা লাল-সবুজ জার্সিধারীরা আজ (বৃহস্পতিবার) গ্রুপে নিজেদের চতুর্থ ও শেষ ম্যাচে ৩-২ গোলে হারিয়েছে ওমানকে।

বাংলাদেশ প্রথমে এগিয়ে যাওয়ার পর দুই গোল হজম করে পিছিয়ে পড়ে। শেষ কোয়ার্টারে ২ মিনিটের ব্যবধানে ২ গোল করে ম্যাচটি নাটকীয়ভাবে জিতে নেয় বাংলাদেশ। খোরশেদুর রহমান হ্যাটট্রিক করে দলকে এনে দেন অবিশ্বাস্য এক জয়। গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার সুবাদে বাংলাদেশ সেমিফাইনাল খেলবে ‘এ’ গ্রুপের রানার্সআপ দলের সঙ্গে।

আরো পড়ুন:আবারও সেঞ্চুরি হাঁকালেন রুট: স্বপ্নের মতো কেটেছে ইংল্যান্ডের টেস্ট অধিনায়ক জো রুটের ২০২১ সাল। যেখানে ছয় সেঞ্চুরি ও চার ফিফটিতে ৬১ গড়ে করেছিলেন ১৭০৮ রান। সেই ধারাবাহিকতা ধরে রাখলেন ২০২২ সালেও। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে হাঁকালেন ব্যাক টু ব্যাক সেঞ্চুরি।

অ্যান্টিগায় সিরিজের প্রথম ম্যাচের দ্বিতীয় ইনিংসে খেলেছিলেন ১০৯ রানের ইনিংস। এবার বার্বাডোজ টেস্টের প্রথম ইনিংসে প্রথম দিন শেষে ১১৯ রানে অপরাজিত রয়েছেন তিনি। অধিনায়কের অনবদ্য ব্যাটিংয়ের সুবাদে প্রথম দিনে ৩ উইকেটে ২৪৪ রান করেছে ইংল্যান্ড।

সফরকারীদের উইকেটের ঘরের সংখ্যা হতে পারতো ২; কিন্তু দিনের শেষ ওভারে গিয়ে সাজঘরের পথ ধরেছেন দারুণ খেলতে থাকা ড্যান লরেন্স। জেসন হোল্ডারের করা সেই ওভারে তৃতীয় ও চতুর্থ বলে দুই চার মেরে নব্বইয়ের ঘরে পৌঁছে গিয়েছিলেন লরেন্স।

পরের বলেও বাউন্ডারির আশায় ব্যাট চালান এ ডানহাতি মিডল অর্ডার। কিন্তু এবার তার ব্যাটের কানায় লেগে বল চলে যায় স্লিপে দাঁড়ানো ক্যারিবীয় অধিনায়ক ক্রেইগ ব্রাথওয়েটের হাতে। ফলে ১৫০ বলে ৯১ রানে থামে লরেন্সের ইনিংস, সমাপ্তি ঘটে ১৬৪ রানের তৃতীয় উইকেট জুটির।

লরেন্স না পারলেও রুট কোনো ভুল করেননি। রয়েসয়ে খেলা ইনিংসে ১৯৯ বল মোকাবিলা তিন অঙ্কে পৌঁছান ইংলিশ অধিনায়ক। যা তার টেস্ট ক্যারিয়ারের ২৫তম সেঞ্চুরি। অ্যালিস্টার কুকের ৩৩ সেঞ্চুরির রেকর্ড ছোঁয়ার পথে আরও এক ধাপ এগোলেন তিনি।

ম্যাচটিতে টস জিতে আগে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্তই নিয়েছিলেন রুট। কিন্তু ইনিংসের চতুর্থ ওভারে রানের খাতা খোলার আগেই সাজঘরের পথ ধরেন আগের ম্যাচের সেঞ্চুরিয়ান জ্যাক ক্রলি। পরে দ্বিতীয় উইকেটে অ্যালেক্স লিসের সঙ্গে ৪১.৫ ওভারে ৭৬ রানের জুটি গড়েন ইংলিশ অধিনায়ক।

দৃঢ় ব্যাটিং করতে থাকা লিসকে আউট করেন বাঁহাতি স্পিনার ভেরাসামি পারমল। ভেতরে ঢোকা ডেলিভারি ব্যাক ফুটে খেলতে গিয়ে লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়েন ১৩৮ বলে ৩০ রান করা লিস। অন্যদিকে ২৪৬ বল খেলে ১১৯ রানে অপরাজিত রয়েছেন রুট।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*