নতুন করে চীন আমেরিকা দ্বন্ধ চরমে!

চীনের জিনজিয়াংয়ে উ’ইঘু’র মু’সলিম’দের গ’ণ’হ’ত্যা ও নি’র্যা’ত’নের ঘট’নায় ক্র’মবর্ধমান ক্ষো’ভের কারণে যুক্তরাষ্ট্রের হাউস অব রিপ্রে’জেন’টিভসের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি বেইজিংয়ের অলিম্পিক আসর কূটনৈতিকভাবে বয়’ক’টের আহ্বান জানিয়েছেন।

কং’গ্রেসের টম ল্যানটোস মা’নবাধি’কার কমিশনের শু’নানিতে পেলোসি বলেন, ‘আপনারা ক্রীড়াবিদদের সম্মান করুন। যদি এই অলিম্পিক অনুষ্ঠিত হয়, আসুন তা কূটনৈতিকভাবে ব’য়ক’ট করা যাক।’ এদিকে, চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ঝাও লিজিয়ান বলেন,

‘আদর্শগত ও রাজনৈতিক কু’সংস্কা’রের ভি’ত্তিতে যুক্তরাষ্ট্রে কয়েকজন ব্যক্তি চীনকে কা’লিমা’লিপ্ত করার এবং শীতকালীন অলিম্পিকের প্রস্তুতি ভে’স্তে দেওয়ার চেষ্টা করছে। আমরা তাদের প্রচেষ্টাকে প্রত্যাখ্যান করি।’কংগ্রেসের কিছু সদস্য ওই অ’লিম্পি’ক আসর চীন থেকে সরিয়ে নিতে কমিটির প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। তবে পেলোসি এবং অন্যান্যরা একটি কম কঠোর পদক্ষেপের পক্ষে কথা বলছেন।

তারা বলেছেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সেখানে ক্রীড়াবিদ পাঠাবে, কিন্তু সরকারের প্রতিনিধি দলকে উদ্বোধনী বা সমাপনী অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়া থেকে বিরত থাকবে। ইউটা রিপাবলিকান সিনেটর মিট রমনি এবং ভার্জিনিয়ার ডেমোক্র্যাট টিম কাইনে চেম্বারে আইন প্রণয়নের প্রস্তাব করেছেন,

যা হংকং-এ মানবাধিকার সমস্যা তুলে ধরার উপায় হিসেবে এবং পশ্চিম জিনজিয়াং অঞ্চলে জাতিগত উইগুরদের প্রতি চীনের আ’চরণের কারণে অ’লিম্পিকে কোনো সরকারি আমেরিকান প্রতিনিধিদল পাঠানোর জন্য অর্থায়ন নি’ষি’দ্ধ করবে।রমনি এবং কাইনের প্রস্তাবটি চীন বিরোধী আ’ইনের একটি প্যা’কেজের সংশোধনী হিসাবে যুক্ত করা হয়েছিল যা এই সপ্তাহে সিনেটের ফ্লোরে বিবেচনা পাচ্ছে।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*