তুরস্ককে হুঁ’শিয়ারি দিলো তালেবান যোদ্ধারা

তালেবান যো’দ্ধারা এবার তুরস্কের ওপর হুঁ’শিয়ারি দিয়েছে। তালেবান জানায়, আফগানিস্তান থেকে ন্যাটো ও মার্কিন সেনারা চলে যাওয়ার পর তুর্কি সেনারা কাবুল বিমানবন্দরের নিরাপত্তার দায়িত্ব নিলে তাদের দখলদার হিসেবে বিবেচনা করা হবে। গতকাল সোমবার এ হুঁ’শিয়ার দেয় তারা।

সম্প্রতি তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান ঘোষণা দিয়েছেন, বিদেশি সেনারা আফগান ত্যাগ করলে ন্যাটোর প্রতিনিধি হিসেবে তুর্কি সেনারা কাবুল বিমানবন্দরের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকবে। বিদেশি কূটনীতিকদের আফগানিস্তানে যাতায়াত নিরাপদ রাখার জন্য যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের অনুরোধে এ সিদ্ধান্ত নেন এরদোয়ান।

কাবুলের হামিদ কারজাই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরসহ আফগানিস্তানে বর্তমানে পাঁচ শতাধিক তুর্কি সেনা রয়েছে। এ ব্যাপারে তালেবানের পক্ষ থেকে বলা হয়, বিগত ২০ বছর ধরে ন্যাটোর সদস্য দেশ হিসেবে তুরস্কের সেনা সদস্যরা আফগানিস্তানে ছিলেন। এখন মার্কিন নেতৃত্বাধীন জোট আফগান ছেড়ে চলে যায়,

তাহলে আমরা তাদের দখলদার হিসেবেই বিবেচনা করব। মুসলিম দেশের সেনা সদস্য বলে আমরা এত দিন তুর্কি বাহিনীর ওপর কোনো হা’মলা চালাইনি। কিন্তু কাবুল বিমানবন্দর নিয়ে আঙ্কারা তার সিদ্ধান্ত না পাল্টালে আমরা এখন থেকে তাদের আর ছাড় দেব না।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*