তিন দিনের সং’ঘ’র্ষে প্রাণ গেল ৪৪ সেনার।

মি’য়ান’মারে’র কা’চিন প্রদেশের বিভিন্ন স্থানে দেশটির সেনাবাহিনীর সঙ্গে স্থানীয় বি’দ্রো’হী গো’ষ্ঠী কা’চিন ই’ন্ডিপেনডেন্স আ’র্মির (কেআইএ) ব্যাপক সং’ঘ’র্ষ ছ’ড়িয়ে প’ড়েছে বলে জানা গেছে। নতুন খবর হচ্ছে, মি’য়ানমা’রের জা’ন্তাবি’রো’ধীদের নিয়ে গঠিত পিপল’স ডি’ফেন্স ফো’র্সের (পিডিএফ) সঙ্গে সং’ঘ’র্ষে দেশটির অন্তত ৪৪ সেনা নি’হ’ত হয়েছে।

দেশটির সা’গিং এলাকায় ৭২ ঘণ্টা সং’ঘ’র্ষে জা’ন্তার পক্ষে এই হ’তা’হ’তে’র ঘ’টনা ঘটে বলে দাবি করা হয়েছে। এর আগে গত ২২ জুন বিবিসি মি’য়ানমা’রের দ্বিতীয় বৃহত্ত’ম শহর মা’ন্দালায়ে পিপল’স ডি’ফেন্স ফো’র্স (পিডিএফ) সেনাবাহিনীর সঙ্গে সরাসরি সং’ঘা’তে জ’ড়া’য় বলে খবর প্রকাশ করে।

এই ঘট’নার আগে পিডিএফ সদস্য’রা দু’র্গ’ম ও ছোট ছোট এলাকায় সক্রিয় ছিল। তবে সাম্প্রতিক সময়ে তাদের স’ক্রিয়তায় জা’ন্তা’বি’রোধী আন্দো’লন নতুন পর্যায়ে পৌঁছেছে বলে মনে করছেন অনেকেই। জা’ন্তা’র সেনা নি’হ’তে’র বিষ’য়ে স্থানীয় প্র’তি’রোধ আ’ন্দোলনের সদস্যদের বরাতে মি’য়ান’মার নাউয়ের খবরে বলা হয়েছে,

হিতিজিয়াং ও কাথা শহরে ২৪ জুন থেকে ২৬ জুন তিন দিন সং’ঘ’র্ষে জা’ন্তার ৪৪ সেনা নি’হ’ত হয়েছে। মিয়া’নমা’রের সেনাবাহিনীর সঙ্গে সং’ঘ’র্ষে পিডিএফ যো’দ্ধা’দের সহা’য়তা করেছে কা’চিন ইন্ডিপে’নডেন্স আ’র্মি (কেআইএ)। তবে বিষয়টি ‘মিয়া’নমা’র নাউ’ স্বত’ন্ত্রভাবে যা’চাই করতে পারেনি।

গত সোমবার হিতিজিয়াং পিডিএফ শাখা ঘোষণা জানায়, শনিবার সন্ধ্যায় তারা মাও কুন তাউং শহরে মি’য়া’নমা’রের সেনাবাহিনীর একটি ব’হরে আ’ক্র’মণ করেন।এতে সেনা’বাহিনীর ১৪ সদস্য নি’হ’ত এবং ৭ জন আ’হ’ত হয়। হিতি’জিয়াং’য়ের একজন বা’সিন্দা জানান, শহরে জা’ন্তা’র সঙ্গে পিডিএফ বি’দ্রোহী’দের এটা ছিল প্রথম সং’ঘ’র্ষ।

স্থানীয় ওই বাসিন্দা বলেন, এখানে সে’নাবাহিনীর কো’নো ঘাঁ’টি নেই। শুধুমাত্র নিরাপত্তার কারণে তারা এসেছিল। সেনাবাহিনী এসে দু’তিন দিন থেকে আ’বার চলে যাচ্ছে। পি’ডিএফ বি’দ্রো’হীরা সে’নাবহ’রে আ’ক্র’মণ করে উল্লেখ করে তিনি বলেন, এলাকার বাসি’ন্দারা ভেবেছিল জা’ন্তা গ্রামগুলোতে আ’ক্র’মণ করেছে।

এই সং’ঘ’র্ষে’র আগে হিত’জিয়াং’য়ের একজন তরুণ নি’হ’ত হন।এরপর সেনাবাহিনীর প্রতি মানুষের ক্ষো’ভ ও ঘৃ’ণা বা’ড়তে থাকে। অন্যদিকে, গত ২৪ জুন পিডিএফের কাথা শাখা বি’দ্রোহীরা হি’তিজি’য়াংয়ের ১০০ কিলোমিটার উতরপূর্বে শিউ কিয়াং গ্রামে সে’নাবাহিনীর ওপর আ’ক্রম’ণ করে। এতে জা’ন্তার ৩০ জ’নের বেশি সেনা স’দস্য নি’হ’ত হয়।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*