ড. কামাল তো দাঁড়াতেই পারেন না, লাথি মারবেন কী করে: নাসিম

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ও গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেনের বক্তব্যের কড়া সমালোচনা করেছেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম। তিনি বলেছেন, ড. কামাল হোসেন তো দাঁড়াতেই পারেন না, লাথি মারবেন কী করে।

বুধবার জাতীয় সংসদে রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর আলোচনায় অংশ নিয়ে তিনি এসব কথা বলেন। ৮ ফেব্রুয়ারি খালেদা জিয়ার কারাবন্দির দুই বছর পূর্তির দিন তার মুক্তি দাবিতে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন ড. কামাল হোসেন।

ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি মিলনায়তনে আয়োজিত ওই আলোচনাসভায় ড. কামাল সরকারকে স্বেচ্ছায় বিদায় নিতে বলেন। নতুবা লাথি মেরে জনগণ সরকারকে বিদায় করবে বলেও মন্তব্য করেন। তার এই মন্তব্য তোলপাড় সৃষ্টি করেছে রাজনৈতিক অঙ্গনে। দুদিন আগে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের ড. কামালের সমালোচনা করে বলেন, তিনি রাস্তার ভাষায় কথা বলেছেন।

বুধবার সংসদে মোহাম্মদ নাসিম বলেন, উনি (ড. কামাল) তো নিজেই দাঁড়াতে পারেন না, কীভাবে লাথি মেরে সরকার ফেলে দেবেন। ওনাকে আমরা অনেক শ্রদ্ধা করতাম, আওয়ামী লীগ ওনাকে প্রেসিডেন্ট পদে ভোট করার সুযোগ দিয়েছিল।

কিন্তু বেশ কিছুদিন ধরে উনি ভাড়া খাটার ব্যবসা করছেন। তাই ওনাকে আর কেউ শ্রদ্ধা করেন না। জনগণ আর ওনার কথা মানে না। উনি যথেষ্ট খারাপ ভাষায় কথা বলেছেন। একেবারে বাজে ভাষায়, এটি কোনো ভদ্রলোক বলে না।

বিএনপির এমপিদের সমালোচনা করে নাসিম বলেন, সংসদে বিএনপির বন্ধুরা অনেক সুন্দর সুন্দর কথা বলেন উল্লেখ করে নাসিম বলেন, এরা বাইরে এক রকম আর সংসদে আরেক রকম। বাইরে এদের অন্যরকম চেহারা। আমার সন্দেহ হয়, এদের সঙ্গে বিএনপির আসল নেতৃত্বের কোনো সম্পর্ক আছে কিনা। সংসদে যখন কথা বলেন, তখন মনে হয় আওয়ামী লীগের প্রতিনিধিরাই কথা বলছেন।

মোহাম্মদ নাসিম দেশে নারী ও শিশু নির্যাতন বেড়ে যাওয়ায় উদ্বেগ প্রকাশ করে আইন আরও কঠোর করার দাবি জানান। পাশাপাশি সম্প্রতি ঢাকার দুই সিটি নির্বাচনে কম ভোট পড়ায় উদ্বেগ প্রকাশ করেন।সড়ক আইন কেন বাস্তবায়ন হচ্ছে না, তা জানতে চান নাসিম। বলেন, কেন প্রতিদিন আমরা সড়কে মৃত্যুর মিছিল দেখি। এ সময় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করেন তিনি।

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *