জয় দিয়ে আইপিএল শুরু করলো মুস্তাফিজের দিল্লী

টপঅর্ডারের ব্যাটারদের ব্যর্থতায় পরাজয়ের আশঙ্কা জেঁকে বসেছিল দিল্লি ক্যাপিট্যালস শিবিরে। তবে একপ্রান্ত আগলে রাখেন ললিত যাদব। আর শেষ দিকে ঝড় তোলেন অক্ষর প্যাটেল। এ দুজনের অবদানে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সকে হারিয়ে এবারের আইপিএল শুরু করলো দিল্লি ক্যাপিট্যালস।

বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টাইনের কারণে দিল্লির হয়ে প্রথম ম্যাচে মাঠে নামা হয়নি বাংলাদেশি পেসার মোস্তাফিজুর রহমানের। তবে টিম হোটেলে থেকে দলের দারুণ এক জয়ই দেখলেন তিনি। আগে ব্যাট করা মুম্বাইয়ের সংগ্রহ ছিল ১৭৭ রান। যা ৬ উইকেট হারালেও, ১০ বল হাতে রেখেই টপকে গেছে দিল্লি।

১৭৮ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ওপরের দিকে রান করতে পেরেছেন কেবল পৃথ্বি শ। এ ডানহাতি ওপেনার ২৪ বলে খেলেন ৩৮ রানের ইনিংস। এছাড়া টিম সেইফার্ট ১৪ বলে ২১, মানদ্বীপ সিং ১ বলে ০, রিশাভ পান্ত ২ বলে ১ ও রভম্যান পাওয়েল করেন ২ বলে ০ রান।

ফলে ৯.২ ওভারে মাত্র ৭২ রানেই ৫ উইকেট হারিয়ে ফেলে দিল্লি। সেখান থেকে ১১ বলে ২২ রানের ইনিংস খেলে রান রেট কিছুটা ঠিক রাখেন শার্দুল ঠাকুর। তিনিও ফিরে যান দলের ১০৪ রানের মাথায়। তখন শেষ ৪০ বলে আরও ৭৪ রান দরকার ছিল দিল্লির।

যা কি না মাত্র ৩০ বলেই করে ফেলেছে অক্ষর-ললিত জুটি। ষষ্ঠ উইকেট পতনের পর অক্ষর উইকেটে আসতেই জ্বলে ওঠেন শুরুতে রয়েসয়ে খেলতে থাকা ললিত। শেষ পর্যন্ত ললিত ৩৮ বলে ৪ চার ও ২ ছয়ে ৪৮ এবং অক্ষর ২ চার ও ৩ ছয়ের মারে ১৭ বলে ৩৮ রানে অপরাজিত থাকেন।

এর আগে মুম্বাইয়ের ব্রাবোর্ন স্টেডিয়ামে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে উদ্বোধনী জুটিতে ৮.২ ওভারে ৬৭ রান যোগ করেন রোহিত ও ইশান। কুলদ্বীপ যাদবের বলে ছক্কা হাঁকাতে গিয়ে আউট হওয়ার আগে ৩২ বলে ৪ চার ও ২ ছয়ের মারে ৪১ রান করেন মুম্বাই অধিনায়ক।

এরপর বাকি ইনিংস যেনো একাই টেনে নেন ইশান। মাঝে আনমোলপ্রিত সিং ৯ বলে ৮, তিলক ভার্মা ১৫ বলে ২২, কাইরন পোলার্ড ৬ বলে ৩ ও টিম ডেভিড করেন ৮ বলে ১২ রান। আরেক বিদেশি ড্যানিয়েল স্যামস ২ বল খেলে এক ছয়ের মারে করেন ৭ রান।

অন্যদিকে শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত খেলে ৪৮ বলে ১১ চার ও ২ ছয়ের মারে ৮১ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলেছেন ইশান কিশান। এটি তার আইপিএল ক্যারিয়ারের ১১তম ফিফটি। ইশানের তাণ্ডবের দিন ৪ ওভারে মাত্র ১৮ রান খরচায় ৩ উইকেট নিয়েছেন কুলদ্বীপ। এছাড়া খলিল আহমেদের শিকার ২ উইকেট।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*