জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে জোড়া মাইলফলক ডাকছে সাকিবকে

সাম্প্রতিক সময়ে ব্যাট-বল হাতে খুব একটা ছন্দে নেই বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। ঘরের ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে বিবর্ণ ছিল তার পারফরম্যান্স। জিম্বাবুয়ে সফরের একমাত্র টেস্টেও ব্যাট হাতে ছিলেন নিষ্প্রভ। বোলিংয়ে প্রথম ইনিংসে ৪ উইকেট নিলেও, দ্বিতীয় ইনিংসে পান মাত্র ১টি।

এখন সামনে সাদা বলের মিশন। আজ (শুক্রবার) থেকে শুরু হচ্ছে জিম্বাবুয়ে ও বাংলাদেশের তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ। বিশ্বকাপ সুপার লিগের অংশ হওয়ায় এ সিরিজের রয়েছে বাড়তি গুরুত্ব। বাংলাদেশ সময় দুপুর দেড়টায় হারারে স্পোর্টস ক্লাব মাঠে শুরু হবে সিরিজের প্রথম ম্যাচটি।

এ সিরিজে সাকিবের সামনে অপেক্ষা করছে দুইটি মাইলফলক। একটি বল হাতে আর অন্যটি ব্যাট হাতে। সিরিজ শুরুর আগে একমাত্র প্রস্তুতি ম্যাচে ব্যাট হাতে ৬১ বলে ৩৭ করেছিলেন সাকিব। তবে ওয়ানডেতে করতে হবে অন্তত ৪৫ রান। সেজন্য অবশ্য সিরিজের তিনটি ম্যাচ রয়েছে সাকিবের হাতে।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তিন ফরম্যাট মিলে বাংলাদেশের হয়ে ১১৯৫৫ রান করেছেন সাকিব। অর্থাৎ আর মাত্র ৪৫ রান করলেই তিনি ঢুকে যাবেন ১২ হাজারি ক্লাবে। তার আগে তিন ফরম্যাট মিলে ১২ রান করেছেন তামিম ইকবাল ও মুশফিকুর রহিম। সবার ওপরে থাকা তামিমের সংগ্রহ ১৪০২৩ রান ও আসন্ন সিরিজ মিস করতে যাওয়া মুশফিকের নামের পাশে রয়েছে ১২৫৫৯ রান।

১২ হাজারি ক্লাবে ঢোকার পথে টেস্টে ৫৮ ম্যাচে ৩৯৩৩ রান, ওয়ানডেতে ২১২ ম্যাচে ৬৪৫৫ রান এবং টি-টোয়েন্টিতে ৭৬ ম্যাচে ১৫৬৭ রান করেছেন সাকিব। তিন ফরম্যাট মিলে তার নামের পাশে রয়েছে ১৪ সেঞ্চুরি ও ৮২টি অর্ধশত রানের ইনিংস।

সাকিবের অন্য রেকর্ডটি বল হাতে। আর মাত্র ২ উইকেট পেলে ওয়ানডে ক্রিকেটে বাংলাদেশের বোলারদের মধ্যে সর্বোচ্চ উইকেটশিকারি হয়ে যাবেন সাকিব। বর্তমানে ২১২ ওয়ানডেতে ২৬৯ উইকেট রয়েছে সাকিবের নামের পাশে।

বাংলাদেশের জার্সিতে ডানহাতি পেসার মাশরাফি বিন মর্তুজার শিকারও ঠিক ২৬৯ উইকেট। তবে এশিয়া একাদশের হয়ে খেলতে নেমে ১ উইকেট পেয়েছিলেন মাশরাফি। ফলে ওয়ানডে ক্রিকেটে তার মোট শিকার ২৭০ উইকেট। এখন আর ২ উইকেট হলে মাশরাফিকে ছাড়িয়ে যাবেন সাকিব।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*