জিম্বাবুয়েতে দলের সাথে যোগ দিলেন সাকিব !

জিম্বাবুয়েতে দলের সাথে যোগ দিয়েছেন অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে পূর্ণাঙ্গ সিরিজ খেলতে গত ২৯ জুন ভোররাতে ঢাকা ত্যাগ করে বাংলাদেশ টেস্ট ক্রিকেট দল। প্রায় ২১ ঘণ্টার ভ্রমণ শেষে জিম্বাবুয়ের হারারেতে পৌঁছে গেছে টাইগাররা। দলের নতুন স্পিন কোচ রঙ্গনা হেরাথ দোহায় জাতীয় দলের সাথে মিলিত হন।

আর দক্ষিণ আফ্রিকান হেড কোচ রাসেল ডোমিঙ্গোর সঙ্গে জোহান্সবার্গে জাতীয় দলের সফর সঙ্গী হয়েছেন নতুন প্রোটিয়া ব্যাটিং কোচ অ্যাশওয়েল প্রিন্সও। তবে পরিবারের সাথে যুক্তরাষ্ট্র ছিলেন সাকিব আল হাসান। সেখান থেকে জিম্বাবুয়েতে জাতীয় দলের সাথে যোগ দিয়েছেন তিনি।

বাংলাদেশ দল জিম্বাবুয়ে যাচ্ছে মোট তিনটি ধাপে। টেস্ট দল গেল প্রথম দফায়। অধিনায়ক মুমিনুল হকের নেতৃত্বে টেস্ট দল ঢাকা ছাড়ে মঙ্গলবার ভোর রাত ৪টায়। ওয়ানডে স্কোয়াডের যারা টেস্ট স্কোয়াডে নেই, তারা ঢাকা ছাড়বেন ৯ জুলাই। আর টি-টোয়েন্টি স্কোয়াডের অন্যরা যাবেন ১৬ জুলাই।

উল্লেখ্য, জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে এই পূর্ণাঙ্গ সিরিজে রয়েছে একটি টেস্ট, তিনটি ওয়ানডে এবং তিনটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ। একমাত্র টেস্ট শুরু হবে আগামী ৭ জুলাই। এরপর তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ শুরু ১৬ জুলাই। আর তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ ২৩ জুলাই। সব ম্যাচই হারারে স্পোর্টস ক্লাব।

টেস্ট স্কোয়াড : মুমিনুল হক (অধিনায়ক), মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ, তামিম ইকবাল, সাদমান ইসলাম, মোহাম্মদ সাইফ হাসান, নাজমুল হোসেন শান্ত, মুশফিকুর রহিম, সাকিব আল হাসান, লিটন দাস, ইয়াসির আলি চৌধুরী রাব্বি, নুরুল হাসান সোহান, মেহেদী হাসান মিরাজ, তাইজুল ইসলাম, নাইম হাসান, আবু জায়েদ চৌধুরী রাহি, তাসকিন আহমেদ, এবাদত হোসেন ও শরিফুল ইসলাম।

ওয়ানডে স্কোয়াড : তামিম ইকবাল (অধিনায়ক), নাইম শেখ, লিটন দাস, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, মোহাম্মদ মিঠুন, আফিফ হোসেন ধ্রুব, নুরুল হাসান সোহান, মেহেদী হাসান মিরাজ, তাইজুল ইসলাম, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, মুস্তাফিজুর রহমান, তাসকিন আহমেদ, রুবেল হোসেন ও শরিফুল ইসলাম।

টি-টোয়েন্টি স্কোয়াড : মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (অধিনায়ক), তামিম ইকবাল, নাইম শেখ, লিটন দাস, সাকিব আল হাসান, সৌম্য সরকার, আফিফ হোসেন ধ্রুব, শামীম হোসেন, নুরুল হাসান সোহান, নাসুম আহমেদ, শেখ মেহেদী হাসান, আমিনুল ইসলাম বিপ্লব, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, মুস্তাফিজুর রহমান, তাসকিন আহমেদ ও শরিফুল ইসলাম।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*