জামায়াত ইসলামীর নতুন পরিকল্পনা!

যু’দ্ধা’পরাধের দায়ে শী’র্ষনেতাদের দ’ণ্ড কার্যকরের পর বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী। মধ্যম সারির নেতাদের হাতে নেতৃত্ব থাকলেও মূলত এখন এ দল পরিচালিত হচ্ছে বিদেশ থেকে। জানা গেছে, কৌশল হিসেবে তারা ১৯৭২ থেকে ৭৫ সালের দিকে যেভাবে সংগঠন পরিচালনা করতো, বর্তমানে ঠিক সেভাবেই চলছে এর কার্যক্রম।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, বর্তমানে বাংলাদেশের জামায়াতের কার্যক্রম নেই বললেই চলে। দলের একটি অংশ একাত্তরে তাদের ভূমিকার পরিপ্রেক্ষিতে দল থেকে বেরিয়ে নতুন আরেকটি রাজনৈতিক দল গঠন করেছে। এমন বাস্তবতায় জামায়াত নতুন কৌশলে বা ভিন্ন কৌশলে সংগটিত হচ্ছে বিদেশে।

যু’দ্ধা’পরা’ধীদের বি’চারে জামায়াতের যেসব নেতা দ’ণ্ডিত হয়েছে, তাদের স’ন্তানরা বেশিরভাগই বিদেশে অবস্থান করছে। তারা সেখান থেকেই বি’ভিন্ন নির্দেশনা দিচ্ছে। একে অপরের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করছে এবং বাংলাদেশকে ঘিরে নতুন ষ’ড়য’ন্ত্র করছে।

এক অনুসন্ধানে দেখা গেছে, মূলত কয়েকটি দেশ থেকে জামায়াত তাদের কার্যক্রম এখন পরিচালনা করছে। পাকিস্তান এর মধ্যে অন্যতম। বর্তমান জামায়াতের মূল সংগঠন হলো জামায়াতে ইসলামী পাকিস্তান। রাজনীতিতে নিবন্ধনের আগে বাংলাদেশেও জামায়াতে ইসলামী পাকিস্তান নামেই সংগঠনটি পরিচালিত হতো। আর তাই জামায়াতের কর্মপন্থা, আদর্শ ও নীতি ইত্যাদি সবকিছুই পাকিস্তানের। এখনো তাদের বেশিভাগ কর্মকাণ্ড সেখান থেকেই নিয়ন্ত্রিত হচ্ছে।

এ বিষয়ে রাজনৈতিক বিশ্লেষক ও বুদ্ধিজীবীরা বলেন, জামায়াত মূলত একটি স’ন্ত্রা’সবাদী সংগঠন। বিদেশে তারা যেভাবে ষ’ড়য’ন্ত্র করছে, সে বিষয়ে সজাগ থাকতে হবে। তা না হলে ভবিষ্যতে তাদের বড় ধরনের তৎপরতায় জড়ানোর শ’ঙ্ক উড়িয়ে দেয়া যায় না।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*