চূড়ান্ত হচ্ছে বাংলাদেশ-ভারত ওয়ানডে এবং টেস্ট সিরিজ

প্রতিবেশী দেশ ভারতের সাথে তেমন একটি দ্বিপাক্ষিক সিরিজ খেলতে দেখা যায়না বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলকে। সর্বশেষ ২০১৫ সালে বাংলাদেশে এসেছিল মহেন্দ্র সিং ধোনির দল ভারত। সেবার প্রথমবারের মতো ভারতের বিপক্ষে দ্বিপাক্ষিক সিরিজ জয়লাভ করে টাইগাররা।

মাশরাফি বিন মোর্তজার নেতৃত্বে এবং মুস্তাফিজুর রহমানের বিধ্বংসী বোলিংয়ে ভারতের বিপক্ষে ২-১ ব্যবধানে ওয়ানডে সিরিজের জয়লাভ করে বাংলাদেশ। এরপর আর বাংলাদেশ সফরে আসেনি ভারত। তবে সেই অপেক্ষার প্রহর শেষ হচ্ছে আগামী বছর।

দীর্ঘ সাত বছর পর আগামী বছর নভেম্বরে বাংলাদেশের বিপক্ষে দুইটি টেস্ট এবং তিনটি ওয়ানডে ম্যাচ খেলতে আসবে ভারত জাতীয় ক্রিকেট দল। গত সোমবার ‘ব্যানটেক’-এর কাছে ১৬১ কোটি টাকায় ব্রডকাস্টার স্বত্ব বিক্রি করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

ভারত সিরিজও এর অন্তর্ভূক্ত। আইসিসির এফটিপি অনুযায়ী ২০২২ সালের নভেম্বরে দুই টেস্ট ও তিন ওয়ানডে খেলতে বাংলাদেশে আসার কথা রয়েছে ভারতের। এফটিপি অনুযায়ী ঘরের মাঠে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তিন ম্যাচের আসন্ন ওয়ানডে সিরিজ শেষে আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে অস্ট্রেলিয়া (টি-টোয়েন্টি), ইংল্যান্ড ও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর টেস্ট সিরিজ খেলতে বাংলাদেশ সফরে আসবে পাকিস্তান ও শ্রীলঙ্কা। এছাড়াও ২০২৩ সালের জানুয়ারি পর্যন্ত ঘরের মাঠে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে পূর্ণাঙ্গ সিরিজ, আফগানিস্তানের বিপক্ষে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজ এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজ খেলার কথা রয়েছে বাংলাদেশের।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*