খুলনায় বিএনপির সমাবেশে চমক, অভিমান ভুলে কর্মসূচিতে মঞ্জু

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির চলমান কর্মসূচির অংশ হিসেবে আগামী ২২ অক্টোর সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে খুলনা মহানগরে। বিভাগীয় এই সমাবেশ ঘিরে দেখা দিয়েছে চমক। ১১ মাস পর বিএনপির কর্মসূচিতে যোগ দিলেন খুলনা মহানগর বিএনপির সাবেক সভাপতি নজরুল ইসলাম মঞ্জু, সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক সিটি মেয়র মনিরুজ্জামান মনিসহ পাঁচ থানা ও নগর বিএনপির সাবেক নেতারা‌।

বৃহস্পতিবার (২০ অক্টোবর) খুলনা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে ২২ অক্টোবর বিএনপির খুলনা বিভাগীয় গণসমাবেশে যোগ দেওয়ার ঘোষণা দেন তারা। পরে সমাবেশ সফল করতে নগরীতে লিফলেট বিতরণ করেন। মঞ্জু-মনি ও সাবেক নেতারা দলের কর্মসূচিতে ফেরায় কর্মীদের মাঝে প্রাণচাঞ্চল্য ফিরেছে।

২০২১ সালের ৯ ডিসেম্বর খুলনা মহানগর বিএনপির ৩ সদস্যের আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণা হলে বাদ পড়েন মঞ্জু ও তাঁর অনুসারীরা। দলের এই সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনার দাবি জানিয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন তিনি। এর পরিপ্রেক্ষিতে ২৫ ডিসেম্বর তাঁকে বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদকের পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়।

রাস্তায় নেমে বিলিয়েছেন লিফলেটও

রাস্তায় নেমে বিলিয়েছেন লিফলেটও

নজরুল ইসলাম মঞ্জুকে অব্যাহতির সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে খুলনা মহানগর বিএনপির সহসভাপতি, যুগ্ম সম্পাদক, ৫ থানার সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক এবং ওয়ার্ড কমিটির পাঁচ শতাধিক নেতা পদত্যাগ করেন। গত ১১ মাস ধরে দলের কর্মকাণ্ডে নিষ্ক্রিয়‌ ছিলেন তাঁরা।

সংবাদ সম্মেলনে নজরুল ইসলাম মঞ্জু বলেন, বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান ও মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সমাবেশে যোগ দেওয়ার জন্য নির্দেশনা দিয়েছেন। সেই নির্দেশনার আলোকে সাধারণ কর্মী হিসেবে তিনি ও মহানগর বিএনপির সাবেক নেতারা সমাবেশে যোগ দেবেন।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের উত্তরে মঞ্জু বলেন, বিভাগীয় গণসমাবেশে যোগ দিলেও পরবর্তীতে তারা পৃথকভাবে কোনো কর্মসূচি পালন করবেন না। পদত্যাগী মহানগর বিএনপির সাবেক নেতাদের বিষয়ে সিদ্ধান্তের ভার চেয়ারম্যান ও মহাসচিবের ওপর ছেড়ে দিয়েছেন।

Sharing is caring!