কোপা নিয়ে অনিশ্চয়তা বাড়ছে, বর্জন করতে পারে ব্রাজিলই!

লাতিনের বিশ্বকাপ হিসাবে পরিচিতি ‘কোপা আমেরিকা’ ঘিরে ক্রমেই তৈরি হচ্ছে অনিশ্চয়তা। স্বাগতিক ব্রাজিল আসর বর্জন করতে পারে বলে গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে। তবে এমন কোনো সিদ্ধান্ত না মানার ঘোষণা দিয়েছে লাতিনের অন্য দুই সুপার পাওয়ার আর্জেন্টিনা ও উরুগুয়ে।

এবারের আসর প্রথমে হওয়ার কথা ছিল কলম্বিয়া ও আর্জেন্টিনায়। কিন্তু কলম্বিয়ায় গৃহযুদ্ধ এবং আর্জেন্টিনায় করোনার কারণে দুই দেশকে আয়োজনের দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেয়া হয়। রাতারাতি কোপা আয়োজনের দায়িত্ব দেয়া হয় ব্রাজিলকে। দেশটি কট্টরপন্থী প্রেসিডেন্ট জাইর বোলসোনারোও এমন সিদ্ধান্তকে খুশি মনে স্বাগত জানিয়েছেন।

কিন্তু দেশের ফুটবলাররাই বেঁকে বসেছে। শনিবার ইকুয়েডরকে হারানোর পর ব্রাজিলের অধিনায়ক কাসেমিরো বলেছেন, তারা এই আসরের বিরোধিতা করবেন।সেই সঙ্গে তিনি জানান, ৮ জুন প্যারাগুয়ের বিরুদ্ধে বিশ্বকাপ বাছাই ম্যাচের পর তারা সবাই কোপা আমেরিকা নিয়ে নিজেদের মত জানাবেন।

সেলেসাওদের নাখোস হবার পেছনে কারণও করোনা পরিস্থিতি। এই ভাইরাসের বিরুদ্ধে ব্রাজিল এখনো লড়াই করছে। লাতিনের দেশগুলোর মধ্যে সেখানেই শনাক্ত ও মৃত্যু বেশি।এমন পরিস্থিতির পরেও ঠিক কি কারণে ব্রাজিলকে কোপা আয়োজনের দায়িত্ব দেয়া হলো সেটা বুঝতে পারছেন না নেইমার-কাসিমেরোরা।

ব্রাজিলের জনগণের মধ্যেও শুরু হয়েছে বিক্ষোভ। প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট এবং বামপন্থী নেতা লুলা দা সিলভা কোপা আয়োজনের বিরুদ্ধে আদালতে গিয়েছেন। সেখানে এখনও শুনানি হয়নি।এই যখন পরিস্থিতি তখন দুই বন্ধু, আর্জেন্টিনার লায়োনেল মেসি ও উরুগুয়ের লুইস সুয়ারেস মাঠে নেমে পড়েছেন।

স্প্যানিশ মিডিয়ার খবর, দু’জনের মধ্যে কোপা নিয়ে কথা হয়েছে।সুয়ারেস জানিয়েছেন, ব্রাজিলে কোপা আমেরিকা হওয়ার বিরোধিতা করবে না উরুগুয়ে। মেসি অবশ্য নিজের সিদ্ধান্ত নিয়ে কিছু জানাননি। তিনি আরও কিছু সময় নিতে চাইছেন।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*