কেউ জানে না, কিন্তু মাশরাফি ভাই ঠিকই জেনে যান

জাতীয় দলের সাবেক তারকা ক্রিকেটার মোশাররফ হোসেন রুবেল ব্রেইন টিউমারে আক্রান্ত হওয়ার পর সফল অস্ত্রোপচার হয়েছে ঠিকই কিন্তু ভালো নেই। সম্প্রতি রুবেলের দুটি ছবি ফেইসবুকে ভাইরাল হয়েছে। যেখানে রুবেলকে একদম রুগ্ন ও জরাজীর্ণ অবস্থায় দেখা যাচ্ছে।

এর আগে গত বছরের শেষ দিকে অবস্থার অবনতি ঘটতে থাকলে আবার ভারতে চিকিৎসা করাতে যান মোশাররফ রুবেল। কিন্তু ফেব্রুয়ারির ২৩ তারিখে ঢাকা ফেরার পর থেকেই অবস্থার অবনতি ঘটতে থাকে জাতীয় দলের এ সাবেক বাঁহাতি স্পিনারের। একদমই খেতে পারছিলেন না। ফলে শরীর ভীষণ দুর্বল হয়ে পড়ে।

শরীর বেশি খারাপ করায় গত সোমবার ১৪ মার্চ মোশাররফ রুবেলকে হাসপাতালে নেওয়া হয়। স্কয়ার হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন আছেন তিনি। এ বিষয়ে মোশাররফ রুবেলের স্ত্রী চৈতি জানিয়েছেন, ‘ভারত থেকে আসার পর থেকেই খেতে পারছিলেন না একদমই। না খেতে পেরে শারীরিকভাবে দুর্বল হয়ে পড়েছিল। গতকাল অবস্থা একটু বেশি খারাপ হয়ে গিয়েছিল। জ্ঞান হারানোর মতো অবস্থা হয়। প্রেশারও কমে গিয়েছিল একদমই। তাই আমরা হাসপাতালে নিয়ে আসি। আইসিইউতে ভর্তি করা হয়েছে।

এদিকে চিকিৎসা খরচ দিতে দিতে আর্থিকভাবে অনেক সমস্যায় পড়েছে মোশাররফ হোসেনের পরিবার। প্রধানমন্ত্রী ছাড়াও বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) দুইবার আর্থিক সহযোগিতা করে। এ ছাড়া তার সতীর্থরা সহযোগিতা করে আসছেন এখনও। যার মধ্যে অন্যতম সাবেক অধিনায়ক মাশরাফি বিন মোর্তুজা।

মোশাররফ হোসেনকে নিয়ে তার স্ত্রী চৈতি ফারহানা রুপা জানান, ‘প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে সহযোগিতা পেয়েছি, বিসিবির কাছ থেকে দুইবার সহযোগিতা পেয়েছি। প্লেয়ারদের কথা বললে, বলব মাশরাফি ভাইয়ের কথা। রুবেলকে নিয়ে ইমার্জেন্সি হাসপাতালে এসেছি, হয়তো কেউ জানে না। এমন কি পরিবারের বাইরেও কেউ জানে না। কিন্তু কোথা থেকে যেন মাশরাফি ভাই ঠিকই জেনে যান। উনি ফোন করেন, উনি যেখানেই থাকুক না কেন, দেশে বা দেশের বাইরে। উনি একটা কথা বলেন যে, ‘ভাবি আপনার এই ভাই কিন্তু আছে।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*