করোনার ভুয়া টিকা নেওয়ার ফলে মিমির এই অবস্থা!

হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েছেন কলকাতার নায়িকা ও সংসদ সদস্য মিমি চক্রবর্তী। শুক্রবার (২৫ জুন) মাঝরাত থেকেই পেটে প্রচণ্ড ব্যথা অনুভব করেন তিনি। ব্যথা না কমায় সকালে ডাক্তার আসেন তাকে দেখতে। জানা গেছে, সিভিয়ার ডিহাইড্রেশন রয়েছে মিমির।

রক্তচাপও কমে গেছে। মঙ্গলবারই ভুয়া আইএএস অফিসার দেবাঞ্জন দেবের আয়োজিত টিকাকরণ শিবির থেকে করোনা টিকার প্রথম ডোজ নিয়েছিলেন মিমি। তার জন্যই কি অসুস্থ হয়ে পড়েছেন তিনি? এমন প্রশ্নের সরাসরি উত্তরটা দিলেন না। মিমি গণমাধ্যমে বলেছেন, ‘খুবই দুর্বল হয়ে পড়েছি।

ভোর ৪টা থেকে পেটে যন্ত্রণা হচ্ছে। ভোর ৬টায় চিকিৎসক আমার বাড়ি আসেন।’ তার কথা থেকেই জানা গেল, চিকিৎসক আপাতত তাকে সারা দিন বিশ্রাম করতে বলেছেন। ফোন দূরে রাখার নির্দেশ দিয়েছেন চিকিৎসক। শারীরিক ও মানসিকভাবে অত্যন্ত বি’ধ্ব’স্ত অভিনেত্রী।

এদিকে গেল মঙ্গলবার কসবার ১০৭ নম্বর ওয়ার্ডের ভুয়া টিকাকরণ শিবিরের পর্দা ফাঁস করেছিলেন মিমি চক্রবর্তীই। সেদিন তৃতীয় লিঙ্গের মানুষদের সঙ্গে কভিড টিকা নিয়েছিলেন তৃণমূল সংসদ সদস্য। জানিয়েছিলেন, সাধারণ মানুষকে টিকা নিতে উৎসাহ দিতেই ক্যাম্পে গিয়ে সবার সঙ্গে টিকা নিয়েছেন তিনি।

কিন্তু টিকা নেওয়ার পর মোবাইলে মেসেজ না আসার পরই মিমির সন্দেহ শুরু হয়। ক্যাম্পে গিয়ে সার্টিফিকেট চাইলে বলা হয়, তিন-চার দিন পর সার্টিফিকেট পাওয়া যাবে। তাতেই সন্দেহ আরো বাড়ে। এর পরই নাকি পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ করে টিকাকরণ প্রক্রিয়া থামিয়ে দেন মিমি।

পরে ভুয়া অফিসার দেবাঞ্জন দেবকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। জালিয়াতির এই জাল কত দূর বিস্তৃত ছিল তা খতিয়ে দেখছেন তদন্তকারী অফিসাররা। ঘটনায় সুশান্ত দাস, রবিন শিকদার এবং শান্তনু মান্না নামের আরো তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*