কনে সাজাতে দেরি হওয়ায় একি কাণ্ড! (ভিডিও)

শ্বশুরবাড়ি থেকে কনেকে সাজাতে দেরি করায় বিয়েবাড়িতে তু’লকা’লাম কা’ণ্ড ঘ’টেছে। লা’ঠিসো’টা নিয়ে বর ও কনেপক্ষের মধ্যে মা’র’ধ’রের ঘ’টনাও ঘ’টেছে। শুক্রবার বিকালে পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালী উপজেলার বড়বাইশদিয়া ইউনিয়নের মধুখালী গ্রামে এ ঘ’টনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানান, দুই সপ্তাহ আগে উপজেলার বড়বাইশদিয়া ইউনিয়নের মধুখালী গ্রামের আব্দুর রহমান ফকিরের ছেলে সোহেবের সঙ্গে পার্শ্ববর্তী মৌডুবী ইউনিয়নের মাঝের দেওর গ্রামের মোরশেদ হাওলাদারের মেয়ের বিয়ে হয়। গত বুধবার বরপক্ষ এসে কনেকে শ্বশুরবাড়িতে নিয়ে যায়। দুই দিন পর শুক্রবার কনে পক্ষের লোকজন বরের বাড়িতে কনেকে আনতে যায়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, দুপুরে কনেপক্ষের লোকদের খাবার শেষে কনেকে সাজাতে দেরি হওয়ায় দু’পক্ষের মধ্যে কথা’কা’টাকা’টি হয়। একপর্যায়ে দুইপক্ষের মধ্যে হ’ট্ট’গো’ল শুরু হয়। লা’ঠি’সো’টা নিয়ে সং’ঘ’র্ষে জ’ড়িয়ে পড়ে তারা। এতে উভয়পক্ষের ১০-১২ জন আ’হ’ত হন।

স্থানীয় ইউপি সদস্য সোনা মিয়া বলেন, কনেযাত্রী ৩০ জন আসার কথা থাকলেও এসেছিল ৫০ জনের বেশি। এ নিয়ে বরপক্ষ মনক্ষু’ন্ন ছিল। কনেকে প্রস্তুত করতে দেরি হলে কনেপক্ষ উ’ত্তেজিত হয়। পরে দুইপক্ষের লোকজন বাক’বিতণ্ডায় জড়িয়ে হা’তাহা’তি হয়।

সবশেষে নিজেদের ভুল বোঝাবুঝির মী’মাং’সা হয়। বর ও কনেকে নিয়ে বাড়ি ফেরেন কনেপক্ষ। এ ব্যাপারে রা’ঙ্গাবা’লী থা’নার ওসি দেওয়ান জগলুল হাসান বলেন, কোনো পক্ষই থা’নায় অভিযোগ করেনি। আমরা পরবর্তীতে খোঁজ নিয়ে জেনেছি স্বামী-স্ত্রীকে নিয়ে গেছেন কনেপক্ষ।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*